লক্ষ্মীর ভান্ডারে আর্থিক বরাদ্দ বৃদ্ধিতে খুশি মহিলারা

মধ্যবঙ্গ নিউজ ডেস্কঃ আসন্ন লোকসভা ভোট। তার আগে লক্ষ্মীর ভান্ডার প্রকল্পে আর্থিক বরাদ্দ বৃদ্ধি করল রাজ্য সরকার। বৃহস্পতিবার বাজেটে এই প্রস্তাব পেশ হয়েছে বিধানসভায়। রাজ্যে এই লক্ষ্মীর ভান্ডার প্রকল্পের মাধ্যমে ২ কোটি ১১ লক্ষ মহিলা আর্থিক সহায়তা পান বলে, রাজ্য সরকার সূত্রের খবর। এদিন পশ্চিমবঙ্গের স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ প্রতিমন্ত্রী চন্দ্রিমা ভট্টাচার্য বাজেট অধিবেশনে জানান, “লক্ষ্মীর ভান্ডার প্রকল্পে মহিলারা মাসিক ৫০০ টাকা করে পেতেন। তবে এবার এই প্রকল্পে তফসিলি জাতি এবং জনজাতির শ্রেণির জন্য আর্থিক সহায়তা ৭০০ টাকা বৃদ্ধি করে মাসিক ১,২০০ টাকা এবং অন্যদের ক্ষেত্রে এই সহায়তা ৫০০ টাকা বৃদ্ধি করে মাসিক ১০০০ টাকা হবে।”

২০২১ সালের বিধানসভা ভোটের আগে ফেব্রুয়ারি মাসে রাজ্যে চালু হয় ‘লক্ষ্মীর ভান্ডার’ প্রকল্প। এই প্রকল্পে রাজ্যের ২৫ থেকে ৬০ বছর বয়সি মহিলারা রাজ্য সরকারের কাছে থেকে ৫০০ টাকা আর্থিক সহায়তা পেতেন। বৃহস্পতিবার বাংলা বাজেটে এই প্রকল্পের আর্থিক বরাদ্দ বৃদ্ধিতে খুশি মহিলারা। সুতির মধ্য চাচন্ড এলাকার বিড়ি মহল্লার শ্রমিক সাবিনা খাতুন জানান, “কোনও রকমে বিড়ি বেঁধে সংসার চলে। বছর দুয়েক ধরে লক্ষ্মীর ভান্ডারে ৫০০ টাকা করে পায়। আজ শুনছি সেই টাকা বাড়িয়ে ১০০০ টাকা করা হয়েছে। আমাদের দিন এনে দিন খাওয়া পরিবারে যা পাব তাই লাভ।”

বৃহস্পতিবার বাজেট অধিবেশনে জানানো হয়েছে ২০২৪ সালের এপ্রিল মাস থেকে এই সহায়তা চালু হবে। রাজ্যের সকল উপভোক্তারা মে মাস থেকে এই সুবিধা পাবেন। এই খাতে রাজ্য সরকারী কোষাগার থেকে অতিরিক্ত ১,২০০ কোটি টাকা বরাদ্দ হয়েছে বলে জানান স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ প্রতিমন্ত্রী চন্দ্রিমা ভট্টাচার্য।