শাকিবদের কাছে টিম স্পিরিট শিখল স্নেহা, শুভমরা

মধ্যবঙ্গ নিউজ ডেস্ক, ২৭ অক্টোবরঃ  একটা অন্য রকম দুপুরের  সাক্ষী থাকল ইডেন গার্ডেন্স। রাত পোহালেই  নেদারল্যান্ডসের সাথে ম্যাচ। তার আগে কলকাতার খুদেদের সাথে নেট প্র্যাকটিস করলেন বাংলাদেশের ক্রিকেট  প্লেয়াররা । একদিকে ছিলেন শাকিব আল হাসানের নেতৃত্বে বাংলাদেশ ক্রিকেটাররা  , অন্যদিকে মাঠে নেমেছিল ২০ জন ছাত্রছাত্রী। যার মধ্যে দুই জন বিশেষভাবে সক্ষম।

আইসিসি এবং ইউনিসেফ এই উদ্যোগ নিয়েছিল। খেলার ফাঁকেই কলকাতা পড়ুয়াদের সাথে আড্ডা জমালেন শাকিব আল হাসান, লিটন দাস, মহমুদুল্লাহ রিয়াদ, মুস্তাফিজুর রহমানরা।

কীভাবে স্পিন করতে হবে , কীভাবে বল পাঠাতে হবে বাউন্ডারির বাইরে, শেখানো  হল সেসবও।

খেলার মাঝেই ক্রিশ মানিক বলেছে, “ কলকাতা নাইট রাইডার্সে লিটন দাসের খেলা দেখেছি। এবার তার সাথেই খেলতে পেরে খুব ভালো লাগছে। আমরা একসাথে ছবিও তুলেছি”। তবে শুধু বাইশ গজের লড়াই নয়, জীবনের লড়াইয়ে কীভাবে লড়তে হবে সেই টিপসও দিন ভাগ করে নেন বাংলাদেশের খেলোয়াড়রা।

কীভাবে স্পিন করতে হবে , কীভাবে বল পাঠাতে হবে বাউন্ডারির বাইরে, শেখানো  হল সেসবও।

‘ক্রিকেট ফর গুড’ উদ্যোগের মাধ্যমে  আইসিসি ও ইউনিসেফ যৌথভাবে লিঙ্গ সাম্যের বার্তাও দিতে চেয়েছে। জোর দেওয়া হয়েছে ছেলে ও মেয়েদের মধ্যে সমতা, আত্মবিশ্বাস ও  দক্ষতার বিকাশে।  প্র্যাকটিসের মাঝেই স্নেহা মণ্ডলের গলাতেও শোনা গিয়েছে জেতার প্রত্যয়। স্নেহা বলেছে, “ ছেলে আর মেয়েরা একসাথে খেলছি তাও আবার আন্তর্জাতিক খেলোয়াড়দের  সাথে  এটা খুব ভালো ব্যাপার”। ক্রিকেটার  তানিশা পাসওয়ান জানিয়েছে, “আজ শিখলাম টিমের সদস্যের মধ্যে খুব ভালো একটা কমিউনিকেশন থাকা দরকার।  সকলে  হাতে হাত ধরে চললেই  জয় আসবে”।

এদিন ক্রিকেটের ময়দানে বিশেষ ভাবে সক্ষম পড়ুয়া শুভম রাজওয়ার জানিয়েছে, টিম স্পিরিট  বিষয়টা খুব ভালোভাবে উঠে এসেছে আজকের ম্যাচে । পড়ুয়াদের সাথে ময়দানে নেমে উৎসাহিত বাংলাদেশের ক্রিকেটারাও। তবে রাত পোহালেই নেদারল্যান্ডসের সাথে ম্যাচ। কী হবে কাল ? নজর সকলের সেই দিকেই।