বড়ঞাতে জমি বিবাদ ঘিরে পিটিয়ে খুনের ঘটনায় আটক দুই, অভিযোগ ১০ জনের নামে

নিজস্ব সংবাদদাতা, কান্দিঃ জমি নিয়ে বিবাদের জেরে এক যুবককে পিটিয়ে খুন করার অভিযোগে ২৪ ঘণ্টার মধ্যে দুইজনকে গ্রেফতার করল কান্দি পুলিশ। বুধবার বড়ঞা থানার সুন্দরপুর গ্রামের ঘটনা। নিহতের নাম সামসুল আলম (৩২)। ওই ঘটনার পর বৃহস্পতিবার বড়ঞা থানার আট জনের বিরুদ্ধে অভিযোগ জানিয়ে ছিলেন মৃতের মা ডলি বিবি। পুলিশ তদন্তে নেমে বৃহস্পতিবার দুইজনকে আটক করে। ধৃতদের নাম আলো সেখ ও লুলু সেখ দুজনেই সুন্দরপুর গ্রামের বাসিন্দা।

পুলিশ সূত্রে জানা যায়, বুধবার সন্ধের সময় স্কুটার করে সুন্দরপুর মোড় থেকে বাড়ি ফিরছিলেন সাহেব ওরফে সামসুল। সাহেবের বাড়ির কাছে পৌঁছানর আগেয় অভিযুক্তরা তাঁকে আটকায়। এবং সেখানেই শুরু হয় বচসা। তারপর  সামসুলকে লোহার রড, পাথর থেকে শুরু করে লাঠি দিয়ে বেধড়ক মারধর করা হয়। ঘটনায় রক্তাক্ত অবস্থায় মাটিতে লুটিয়ে পড়েন সামসুল আলম। স্থানীয়দের তৎপরতায় তাঁকে নিয়ে আসা হয় কান্দি মহকুমা হাসপাতালে। সেখানেই মৃত বলে ঘোষণা করেন চিকিৎসক।

মৃতের মা জানান, ‘জমি বিবাদের কারণেই মেড়ে ফেলা হয়। বাড়ির পাশের জমি নিয়ে এই সমস্ত বিবাদ। পরিকল্পিতভাবে খুন করা হয় আমার ছেলেকে।’ বৃহস্পতিবার পুলিশ আটক করেন দুইজনকে। এবং তাঁদের পাঠান হয় কান্দি মহকুমা আদালতে। সেখানেই ভাস্কর মজুমদারের এজলাসে দুজনকে পাঁচ দিনের পুলিশি হেফাজতে রাখার নির্দেশ দেওয়া হয়। যদিও ঘটনায় ফাঁসানোর অভিযোগ তুলছেন ধৃতদের মধ্যে একজন। এই ঘটনার পেছনে রয়েছে বড় মাথা এমনই অভিযোগ আনেন এক ধৃত।