বইয়ের বিক্রি কমেছে লালগোলা বইমেলায়, দাবি বিক্রেতাদের একাংশের

নিজস্ব সংবাদদাতা, লালগোলাঃ লালগোলা এম এন একাডেমীর মাঠে চলছে বইমেলা। এবারের লালগোলা বইমেলা দশম বর্ষে। তবে মেলায় বইপ্রেমীদের আনাগোনা কমেছে। হতাশা প্রকাশ করছেন লালগোলা বইমেলায় স্টলদাতারা।

বছর দশেক আগে সীমানা ঘেঁষা লালগোলায় মুর্শিদাবাদ জেলা পুলিশের উদ্যোগে শুরু হয়েছিল এই মেলা। এবছর ২৬টি বইয়ের স্টল সহ মোট ৭০ টি স্টল রয়েছে এই মেলায়। সঙ্গে চলছে নানান সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানও। তবে এই আড়ম্বরের মাঝে কোথাও কমেছে বইয়ের বিক্রি জানাচ্ছেন বই বিক্রেতারাই। কলকাতা থেকে বইয়ের স্টল নিয়ে মেলায় এসেছেন অসীম বালা। তিনি জানাচ্ছেন, “দশবছর ধরে লালগোলা বইমেলায় আসছি। তবে এবছর বইয়ের বিক্রি আগের বছরের থেকে অনেক কমেছে। রোজ ৫০০ টাকার বই বিক্রি করতে হিমসিম খেতে হচ্ছে”।

যদিও শীতকে উপেক্ষা করেও বইয়ের টানে অনেকেই আসছেন লালগোলা বই মেলায়। বইও কিনছেন অনেকে। মেলায় এসেছিলেন স্থানীয় বাসিন্দা মধুমিতা দাস তিনি জানান, “বইমেলাতে বরাবরই আসি। এবারেও এসেছি। বই কিনেছি। তবে অন্যান্য বছরের থেকে এবছর ভিড় দেখছি একটু কম। শীতের জন্য বোধহয়”। ১৬ই জানুয়ারি পর্যন্ত চলবে মেলা। শেষ কয়েক দিনে বইয়ের চাহিদা বাড়বে বলেই মনে করছে অনেকে।

জাঁকিয়ে পড়েছে শীত। অন্যান্য বছরের থেকে এবছর তাই মেলা চত্বরে মানুষের আনাগোনা কমেছে। ফলস্বরূপ কমেছে বইয়ের বিক্রিও। লালগোলা বইমেলা কমিটির সভাপতি সমীর কুমার বিশ্বাস জানান, “দশবছরের নিরিখে এই বছর সবচেয়ে বেশি শীত পড়েছে। লালগোলাতে বইয়ের পাঠক থাকলেও, শীতের দাপটে মেলা থেকে মুখ ঘুরিয়েছে মানুষ। তবে এখনও তিনদিন আছে মেলা। লালগোলার মানুষকে অনুরোধ তাঁরা মেলায় আসুক, বই কিনুক”।