বাজার ছেয়েছে ৫০০ টাকার জালনোটে ! সামসেরগঞ্জে গ্রেফতার ১ কারবারি

মধ্যবঙ্গ নিউজ ডেস্কঃ সামশেরগঞ্জে হাতবদলের আগেই জালনোট সহ এক যুবককে গ্রেপ্তার করল পুলিশ। গোপন সুত্রে খবর পেয়ে অভিযান চালিয়ে ওই যুবকে ধরে পুলিশ। জানা গিয়েছে শুক্রবার সন্ধ্যায় সামসেরগঞ্জ থানার বাসুদেবপুর পিলকি মোড় সংলগ্ন এলাকা ৩৪ নম্বর জাতীয় সড়কে অভিযান চালায় পুলিশ। তখনই এক যুবককে আসতে দেখে সন্দেহ হয় পুলিশের। আটক করা হয় তাঁকে।

তল্লাশি চালিয়ে ধৃতের কাছ থেকে উদ্ধার হয় ২ লক্ষ ২৫ হাজার টাকার জাল নোট। উদ্ধার হওয়া নট গুলি সবই ৫০০ টাকার । ধৃত নুর ইসলাম শেখ সুতির হারুয়া এলাকার বাসিন্দা বলে পুলিশ সুত্রে খবর। জালনোট কোথায় থেকে নিয়ে এসেছিল এবং কোথায় নিয়ে যাচ্ছিল সেটি যদিও এখনও খতিয়ে দেখছে পুলিশ। শনিবার ওই যুবককে জঙ্গিপুর কোর্টে পাঠায় পুলিশ।

ঠিক একমাস আগেই অর্থাৎ ৩০ আগস্ট মুর্শিদাবাদের সামশেরগঞ্জের নতুন ডাকবাংলা সংলগ্ন এলাকায় ৩৪ নম্বর জাতীয় সড়কে অভিযান চালিয়ে জালনোট সহ এক নাবালককে আটক করে পুলিশ। প্রায় ৫৬ হাজার টাকা সমেত ধরা হয়েছিল এক নাবালককে। এক অভিনভ কায়দায় জাল নোটের পাচার হওয়ার আগেই পুলিশ ধরে ফেলে পাচারকারী নাবালককে। টাকার পরিমাণে খুব অল্প সংখ্যক লাগলেও।

পাচারের কায়দাটা অভিনভ। অন্ত্যত মুর্শিদাবাদ জেলায়। এছাড়া আগেও অনেকবার এমন হয়েছে যে কমবয়সী যুবকদের হাত দিয়ে লক্ষ লক্ষ টাকা পাচাররের চেষ্টা করা হয়েছে। কিন্তু সবক্ষেত্রেই অসফল পাচারকারিরা।

কিন্তু অন্ধকার বিষয়টা এখানেই থেকে যায় এত বিপুল পরিমান টাকা কোথায় জাল করা হচ্ছে। এবং এর পেছনে কে বা কাদের হাত থাকতে পারে। এবং প্রশাসনের কাছে যদি আগের থেকেই সমস্ত খবর থাকে তাহলে কেনই বা আটকানো যাচ্ছে না এই সমস্ত মাস্টার মাইন্ডদের।

যতদিন যাবে ততই এই সমস্ত বাজপাখিরা আরও শক্তিশালী হতে থাকবেন। খুঁজতে থকাবে কমজোরি শিকারদের। আজ হয়ত সংখ্যার নিরিখে খুব কম শোনালেও কে জানে ভেতর ভেতর কত টাকারই না লেনদেন চলছে এদিক থেকে সেদিকে। এবং সবচেয়ে বেশি লক্ষ্য করা যাচ্ছে ৫০০ টাকার নোটের। কারণ বাজারে ২০০০ টাকা বন্ধ হওয়ার পরেই রমরমিয়ে জাল হতে থাকে ৫০০ টাকার নোট। তাহলে কী এবার আমরা ধরে নিতে পারি! যে ৫০০ টাকার নোটটাও খুব শিগ্রই বাতিল হতে চলেছে?