নিঁখোজ যুবকের নিথর দেহ উদ্ধার, বড়ঞা থানায় বিক্ষোভ পরিবারের

নিজস্ব সংবাদদাতা, বড়ঞাঃ সাতদিন ধরে নিঁখোজ থাকার পর অবশেষে উদ্ধার হল অভিজিৎ সাহা (২৫)র মৃতদেহ‌। পরিবারের অভিযোগ তাঁকে খুন করা হয়েছে। রবিবার সকালে বড়ঞা ব্লক স্বাস্থ্য কেন্দ্রের পিছনের পুকুর থেকে তাঁর নিথর দেহ ভাসতে দেখে স্থানীয় মানুষজন। তাঁরাই পুলিশে খবর দেয়। পুলিশ এসে মৃতদেহ উদ্ধার করে থানায় নিয়ে যায়। খবর পেয়ে বাড়ির লোক থানায় এসে মৃতদেহ শনাক্ত করে। এরপর পুলিশ মৃতদেহ ময়না তদন্ত করতে পাঠায়। স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, নিঁখোজ অভিজিৎকে খুঁজতে থানায় মিসিং ডায়েরি ও করা হয় দিন সাতেক আগে। পরিবারের অভিযোগ, পুলিশ বিন্দুমাত্র খোঁজার চেষ্টা করেনি। চেষ্টা করলে হয়ত অভিজিৎকে খুন হতে হত না।

পুলিশ সূত্রে জানা যায়, স্থানীয় এক মহিলার সঙ্গে অবৈধ সম্পর্কে জড়িয়ে পরে অভিজিৎ। পরিবারের লোকের অভিযোগ ওই মহিলাই পরিকল্পিতভাবে অভিজিৎকে খুন করেছে। নিঁখোজ হওয়ার পর পুলিশকে সে কথা জানালেও পুলিশ কোনও পদক্ষেপ নেয়নি। ওই মহিলাকে গ্রেপ্তারের দাবিতে বারংবার থানায় বিক্ষোভ দেখায় অভিজিতের বাড়ির লোকজন।  কান্দি মহকুমা পুলিশ আধিকারিক বলেন, “পরিবারের তরফ থেকে লিখিত অভিযোগ দায়ের হয়েছে। ঘটনার তদন্ত শুরু হয়েছে।”