স্কুলে মানসিকভাবে কীভাবে সুরক্ষিত থাকবে পড়ুয়ারা, কর্মশালা শিক্ষকদের

মধ্যবঙ্গ নিউজ ডেস্কঃ শিশুদের সুরক্ষা নিয়ে স্কুলের শিক্ষকদের নিয়ে হল কর্মশালা। মঙ্গলবার বহরমপুর সার্কিট হাউসে শিশু সুরক্ষা ও সাইবার ক্রাইম বিষয়ে হল আলোচনা। কীভাবে নিরাপদে থাকবে শিশুরা? শিশুদের নিরাপত্তা রক্ষা করতে কী ভূমিকা নেবেন অভিভাবক থেকে শিক্ষক শিক্ষিকারা? এসব নিয়েই আলোচনা করেন  জাতীয় শিশু সুরক্ষা কমিশন (এনসিপিসিআর)-এর আধিকারিকরা।

এনসিপিসিআর-এর উদ্যোগে ও জেলা সর্বশিক্ষা মিশনের আয়োজনে এই কর্মশালা হয়। কর্মশালায় অংশগ্রহণ করেছিলেন জেলার ৪১টি চক্রের স্কুল থেকে আসা শিক্ষক এবং শিক্ষিকারা। এছাড়াও উপস্থিত ছিলেন অভিভাবকরা। শিশুদের নিয়ে যত্নশীল হওয়ার বার্তা দিলেন শিক্ষকেরা। শিশুদের শারীরিক বিকাশের পাশাপাশি দরকার মানসিক বিকাশও। তা নিশ্চিত করতেই উদ্যোগ নিতে হবে শিক্ষক শিক্ষিকাদের, বলেন কেন্দ্র থেকে আগত এনসিপিসিআর আধিকারিক ইলা সিনহা।

কীভাবে শিশুদের সাইবার সংক্রান্ত বিপদ থেকে সুরক্ষা করা যায়? সেই নিয়ে আলোচনা করেন ডোমকল মহকুমা পুলিশ আধিকারিক সেখ সামসুদ্দিন। এই কর্মশালায় উপস্থিত ছিলনে, জেলা প্রশাসনের আধিকারিকেরা। কর্মশালা শেষে যা শিখলেন তা কার্যকারী করার চেষ্টা করবেন স্কুলেও, জানান শিক্ষকরাও। শিশুরা বাড়ির পর সবথেকে বেশি সময় কাটায় স্কুলে। সীমান্ত পাড়ে লালগোলার প্রত্যন্ত গ্রামের স্কুলের শিক্ষক রনি ঘোষ জানান, শিশুদেরকে বুঝতে আমাদেরও মনোযোগ দিতে হবে। তাঁদের মেধাকে বুঝে সেই মেধাকে সঠিক রাস্তা দেখানোই শিক্ষকদের কাজ। সেই কাজে কীভাবে ইন্টারনেট ব্যবহার করবেন তা নিয়ে আলোচনা হয় আজকের কর্মশালায়।