রাত পোহালেই ৮১ কিমি সাঁতার! সাঁতারুদের সংবর্ধনা মুর্শিদাবাদ সুইমিং অ্যাসোসিয়েশনে

দেবনীল সরকার, বহরমপুরঃ দীর্ঘ তিন বছর পরে আবার হতে চলেছে ৮১ কিলমিটার সাঁতার প্রতিযোগীতা। শহরে এসে পৌঁছলেন জাতীয় ও আন্তর্জাতিক সাঁতারুরা। সুদূর স্পেন, মালয়েশিয়া থেকে থাইল্যান্ড, পার্শ্ববর্তী দেশ বাংলাদেশ থেকে প্রতিযোগীরা এসে পৌঁছলেন সুইমিং অ্যাসোসিয়েশনের প্রাঙ্গণে। এছাড়াও দেশের বিভিন্ন রাজ্য জম্মু-কাশ্মীর থেকে তেলেঙ্গানা, মহারাষ্ট্র, গুজরাট তথা পশ্চিমবঙ্গের বিভিন্ন প্রান্ত থেকে আগত প্রতিযোগীদের সংবর্ধনা জানানো হল মুর্শিদাবাদ সুইমিং অ্যাসোসিয়েশনে। শনিবার বিকেলে উদ্বোধনী সঙ্গীত ও সংবর্ধনা অনুষ্ঠানের মাধ্যমে স্বাগত জানানো হয়। প্রতিযোগীদের সংবর্ধনা জানাতে এদিন মুর্শিদাবাদ সুইমিং অ্যাসোসিয়েশনে উপস্থিত ছিলেন রাজ্যের বিদ্যুৎ প্রতিমন্ত্রী আখরুজ্জামান, প্রাক্তন সাংসদ অভিজিৎ মুখার্জী সহ অন্যান্য বিশিষ্ট আধিকারিকেরা। ন্যাশনাল সুইমিং ফেডারেশনে তরফে উপস্থিত ছিলেন আর.পি পান্ডে। এছাড়াও শহর তথা জেলার বিশিষ্টজনেরা।

রবিবার মুর্শিদাবাদের আহিরন ব্যারেজ ঘাট থেকে শুরু হবে ৮১ কিলোমিটার ও জিয়াগঞ্জ সদরঘাট থেকে শুরু হবে ১৯ কিলোমিটারের সাঁতার প্রতিযোগিতা। এই সাঁতার প্রতিযোগিতা শেষ হবে বহরমপুরের গোরাবাজার কলেজঘাটে এসে। শহরে এসে উচ্ছাসিত প্রতিযোগিতারা। মুর্শিদাবাদ সুইমিং অ্যাসোসিয়েশনের সম্পাদক দেবেন্দ্রনাথ দাস জানান, তিন বছর বন্ধ থাকলেও রবিবার স্বমহিমায় হতে চলেছে বিশ্বের দীর্ঘতম সাঁতার প্রতিযোগিতা। সেদিন রাজ্যের পরিবহণ মন্ত্রী স্নেহাশিস চক্রবর্তীর উপস্থিত থাকার কথা। এবারে প্রত্যেক সাঁতারুর জন্য থাকবে আলাদা আলাদা সেফটি বোটের ব্যবস্থাও। পুরো সাঁতার প্রতিযোগিতাটি হবে ড্রোনের নজরদারীতে। এবারের প্রতিযোগিতায় প্রথমবারের জন্য ব্যবহৃত হবে ড্রোন। স্পেনের সাঁতারু, হোসে লুই লারোসা গত দুইবার এই ৮১ কিলোমিটারের প্রতিযোগিতায় অংশগ্রহণ করেছেন। এবারে তিনি আবার এসেছেন হ্যাট্রিক করার আশায় উচ্ছ্বসিত তিনিও।