জগন্নাথ মন্দির মুছে বহরমপুরে স্বচ্ছ মন্দির অভিযানের সূচনা সুকান্তর

নিজস্ব সংবাদদাতা, বহরমপুরঃ বিজেপির নয়া কর্মসূচির দৌলতে এবার  রাম মন্দিরের হাওয়া  লাগল বহরমপুরেও। অযোধ্যায় রাম মন্দির উদ্বোধন ও রামের প্রাণ প্রতিষ্ঠার আগে জেলায় জেলায় স্বচ্ছ ভারত অভিযানের অনুকরণে স্বচ্ছ মন্দির অভিযানে নেমেছে বিজেপি। রবিবার গেরুয়া শিবিরের সেই কর্মসূচির সূচনা হল বহরমপুরে। বিজেপির রাজ্য সভাপতি সুকান্ত মজুমদার মপ রড হাতে দলীয় কার্যালয় সংলগ্ন জগন্নাথ মন্দিরের মেঝে পরিস্কার করে কর্মসূচির সূচনা করেন। পরে সাংবাদিকদের মুখোমুখি হয়ে তিনি দাবি করেন, “ রাম ভারতের অহংকারের প্রতীক। রাম কারও একার নয়। রাম সবার।”

রবিবার সকালে হাজারদুয়ারী এক্সপ্রেসে বহরমপুরে নামেন সুকান্ত। সেখান থেকে সোজা চলে যান বহরমপুরের পুরনো সদর হাসপাতাল সংলগ্ন জগন্নাথ মন্দিরে। সংগঠনের বহরমপুর জেলা সভাপতি শাখারভ সরকারকে নিয়ে সেখানে পুজো দিয়ে চলে আসেন দলের কার্যালয়ে। শতাব্দী রায় রাম মন্দির নিয়ে বিজেপির প্রচারকে শনিবার কটাক্ষ করেন।তিনি  বলেন, “ বিজেপি নাকি রামকে বাড়ি করে দিচ্ছে। তাদের এত ক্ষমতা। তাহলে রাম বোধহয় বিপিএল। আমরা যেমন বিপিএল কার্ডে মানুষকে বাড়ি দিচ্ছি, তেমনি ওরাও রামকে বাড়ি দিচ্ছে। তা হলে রামের ছেলে লব–কুশকেও একটি করে বাড়ি দিলে পুণ্য হবে।” সুকান্ত বলেন, “ লোকসভা নির্বাচনের সময় উগ্র মানসিকতা সম্পন্ন মানুষকে খুশি করতে  রামকে অপমান সূচক কথা বলেছেন সাংসদ। আশা করি নির্বাচনেই বীরভূমবাসী তাঁকে উচিত শিক্ষা দেবে।”