Salar : সালারে তৃণমূল নেতার বাড়িতে বোমাবাজির অভিযোগ

Salar :  লোকসভা ভোট মিটতে ফের অশান্তি সালারে। এবার তৃণমূল All India Trinamool Congress নেতা মহম্মদ আজাহারউদ্দিন ওরফে সিজারের বাড়ি লক্ষ্য করে বোমাবাজির অভিযোগ উঠেছে শনিবার সকালে। এদিন  ভরতপুর ২ নম্বর ব্লকের   সালার Salar  থানার   উজুনিয়া গ্রামে  ওই তৃণমূল নেতার  বাড়ি ও বাড়ির পাশে ৬টি বোমা মারা হয় বলে অভিযোগ। পুলিশ ১ একটি তাজা বোমা উদ্ধার করেছে। এই ঘটনায় তৃণমূল নেতার অভিযোগ দলেরই অপর গোষ্ঠীর বিরুদ্ধে। এদিন বমাবাজির ঘটনার পর তৃণমূলের দুই পক্ষের কর্মীদের মধ্যে উত্তেজনাও ছড়ায় গ্রামে।

ভরতপুরের বিধায়ক হুমায়ুন কবিরের ঘনিষ্ট বলেই পরিচিত মহম্মদ আজাহারউদ্দিন ওরফে সিজার। কিন্তু শাওনি সিংহ রায় তৃণমূলের জেলা সভাপতি হওয়ার পর  ভরতপুর ২ এ ব্লক সভাপতির পদ থেকে হুমায়ুন ঘনিষ্ঠ আজহারুদ্দিন ওরফে সিজারকে সরিয়ে দেওয়া হয়। ব্লক সভাপতি করা হয়  মুস্তাফিজুর রহমান ওরফে সুমনকে ।  পঞ্চায়েত নির্বাচনে  থেকে জেলা পরিষদের ৬২ নম্বর আসনে নির্দল হয়ে ভোটে দাঁড়িয়েছিলেন সিজার। যদিও তৃণমূল প্রার্থী মুস্তাফিজুর রহমান ওরফে সুমনের কাছে পরাজিত হন তিনি।  পরে জেলা পরিষদের কর্মাধ্যক্ষও নির্বাচিত হন মুস্তাফিজুর রহমান ওরফে সুমন। বোমাবাজির পিছনে তৃণমূলের গোষ্ঠী কোন্দল নাকি অন্য কোন কারণ তা খতিয়ে দেখছে সালার থানার পুলিশ।

তৃণমূলের অন্য পক্ষের দিকেই অভিযোগের আঙুল তুলেছেন মহম্মদ আজাহারউদ্দিন ওরফে সিজার। সিজার বলেছেন তিনি তৃণমূল কংগ্রেসের জেলা সম্পাদক, এলাকার নেতা। তাঁকে বিরক্ত করার জন্য বাড়িতে বোমাবাজি করা হচ্ছে। গ্রামে শান্তিশৃংখলার পরিবেশ নষ্ট করা হচ্ছে।  যদিও মুস্তাফিজুর রহমান ওরফে সুমনের দাবি, যিনি অভিযোগ করছেন তিনি দলের প্রাক্তন নেতা। গ্রাম্য বিবাদের জেরে ওই ব্যক্তির আশ্রিতরাই বোমাবাজি করে। পুলিশ তদন্ত করে দেখুক। সুমনের দাবি, ওই নেতা তৃণমূল করেন না। তিনি কংগ্রেসের হয়ে ভোটে কাজ করেছেন।