পুজোর সাজঃ পঞ্চমী থেকে দশমী, লুকসেট থাকুক আগের থেকেই।

সাঈনী আরজু, বহরমপুরঃ পুজোর কাউন্ট ডাউন শুরু হয়ে গেছে। শাড়ি থেকে জাম্পস্যুট সবই রয়েছে পুজোর সাজ এর তালিকায়। পুজোর সাজ বলে কথা! এক এক দিন এক এক রকম লুক। তবে পোশাকের সঙ্গে মানানসই সাজ না হলে কিন্তু পুজোর লুক একেবারে মাটি!

আজকাল ন্যাচারাল মেক-আপ অর্থাৎ নো মেক-আপ লুক বা ক্লিন গার্ল লুক ট্রেন্ড এ চলছে। পুজোর যে কোনও দিনের সাজে রাখতেই পারেন ‘নো মেক-আপ লুক’! সকালের দিকে এই লুক বেশি মানানসই। রাতের বেলায় যে কোন ওয়েস্টার্ন ড্রেস-এর সাথেও যেতে পারে এই লুক। খুবই জমকালো কোনো পোশাকের সঙ্গে চড়া মেক-আপ করবেন না। বরং নো মেক-আপ লুক আপনার মুখে এনে দেবে অন্যরকম অভিব্যক্তি। ঠোঁটে হালকা ন্যুড বা পিঙ্ক লিপস্টিক, সামান্য কনসিলার দিয়ে মুখের দাগ, চোখের নীচের কালি ঢেকে নিন, গালে খুব হাল্কা ব্লাশ লাগাতে পারেন এবং চোখের পাতায় লাগান মাসকারা। ব্যস, তৈরি আপনার নো মেক-আপ লুক।

আবার নবমীর সন্ধ্যায় সাজার জন্য বেছে নিতেই পারেন  ‘রেড লিপ্স’ অর্থাৎ ‘বোল্ড মেক-আপ লুক’।
সময়ের সাথে সাথে বদলেছে মানুষের পছন্দ অপছন্দ, কালো বা সাদা রং কে সমান চোখে এখন দেখা হয় যে কোনও রকমের অনুষ্ঠানে। কালো, সাদা বা যে কোনো রঙের শাড়ী, সালোয়ার স্যুট কিংবা ওয়েস্টার্ন টপ, লাল ঠোঁটের মোহ-ম্যাজিক সর্বত্র। যেহেতু এখানে ঠোঁটের সাজটাই মূল, তাই মুখে এবং চোখে খুব সামান্য মেক-আপ করবেন।

তবে রেড লিপস হোক আর নো মেক-আপ লুক, হাইলাইটার খুব জরুরি। কপালে, গালে, নাকে, গলায় হাইলাইটার লাগান। তবে খুব বেশি নয়। ব্যস, পুজোর সাজ এর নকশা তৈরি!

স্মোকি আই লুক –
যে কোনও ইন্দো ওয়েস্টার্ন আউটফিটের সাথে অক্সিডাইজড জুয়েলারি মানায়। এবং তার সাথে করতে পারেন স্মোকি আই লুক। শাড়ি বা ইন্ডিয়ান ড্রেস এর সাথেও এই লুক বেশ ভালোই লাগে। কালো কাজল চোখের ওপরের এবং নিচের পাতায় লাগিয়ে, ব্রাশ দিয়ে স্মাজ করে দিন, ব্যাস! স্মোকি আই লুক রেডি!

মহিলা পুরুষ নির্বিশেষে সবাই এখন “ফ্যাশানেবাল”।545454 পঞ্চমী থেকে দশমী, প্রতিদিনের লুক আগের থেকেই ঠিক করে রাখা ভালো।