বাদশাহী সড়কে পথে নেমে, প্রশ্নের মুখে অধীরই ?

মধ্যবঙ্গ নিউজ ডেস্কঃ  বাদশাহী সড়ক সংস্কার নিয়ে আন্দোলনে নেমে কার্যত বিরোধীদের তোপের মুখে পড়লেন বহরমপুরের সাংসদ, প্রদেশ কংগ্রেস সভাপতি অধীর রঞ্জন চৌধুরী Adhir Ranjan Chowdhury । রবিবার সকালেই বড়ঞার কুলি চৌরাস্তা থেকে মারুট পর্যন্ত পদযাত্রা শুরু করেন অধীর চৌধুরী। বাদশাহী সড়কের এই অংশ বহরমপুর লোকসভার বড়ঞা বিধানসভায় পড়ে। অধীরের দাবি, চার বছর ধরে ওই রাস্তা সংস্কারের কাজ হয় নি। তৃণমূল কংগ্রেসকে নিশানা করে অধীর বলেন , অধীরে বলেন, “ সব বিধায়ক, পঞ্চায়েত তৃণমূলের। তাও রাস্তা কেন হবে না?”।

যদিও পথে নেমে প্রশ্নের মুখে পড়েছেন খোদ সাংসদই। তৃণমূল কংগ্রেসের খোঁচা, এতোদিন রাস্তা নিয়ে চিন্তা ছিল না অধীরের । পঞ্চায়েত ভোটের আগে সিমপ্যাথী আদায় করতে এসেছেন। সাংসদ হিসেবে জেলার উন্নয়নে অধীর চৌধুরীর ভূমিকা নিয়েও প্রশ্ন তুলেছেন বিজেপি, তৃণমূল কংগ্রেস নেতৃত্ব।

এদিন পদযাত্রায় নেমে অধীর দাবি করেছেন, প্রায় চার বছর ধরে ওই রাস্তার সংস্কার হয় নি। রাস্তায় বেহাল দশায় ভুগছেন সাধারণ মানুষ। রাস্তা সংস্কার না হলে রাস্তা অবরোধেরও হুমকি দেন সাংসদ। এদিন  অধীর  বলেন, “ধানাই পানাই শুনবো না।  রাস্তা সংস্কার করতে হবে।  না হলে পথ অবরোধ, এসডিও  অফিস অবরোধ হবে”।

অধীরের আন্দোলনকে অবশ্য ভোটের জন্য হাঁটা বলেই কটাক্ষ করেছেন  বিজেপি’র মুর্শিদাবাদ দক্ষিণ সাংগঠনিক জেলার সভাপতি শাখারভ সরকার Shakharav Sarkar । অধীর চৌধুরীর সাংসদ তহবিলের হিসেব চেয়েছেন শাখারভ। তিনি বলেন,  “ যখনই নির্বাচন আসে তখনই তিনি পদযাত্রার  কথা মনে  করেন।   বহরমপুর লোকসভায় অধীর বাবুর পায়ের তলার মাটি টলমল করছে সেই কারনে আজ তিনি পদযাত্রা,  অমক তমুক  করে বেড়াচ্ছেন”।

অধীরের বিরুদ্ধে আক্রমণে সুর চড়িয়েছে তৃণমূল কংগ্রেসও।  বড়ঞার তৃণমূল কংগ্রেস  বিধায়ক জীবন কৃষ্ণ সাহার দাবি, সাংসদ হিসেবে এলাকার উন্নয়নে ভূমিকা নেই অধীর চৌধুরীর।

জীবন কৃষ্ণ সাহার Jiban Krishna Saha  সোজাসুজি আক্রমণ, “ তিনি (অধীর)   মনে করলেন রাস্তা সংস্কার  আগেই করতে পারতেন। এখন  সিমপ্যাথি আদায় করার জন্য হেঁটে  যাচ্ছেন” । বিধায়কের আরও দাবি,  সাংসদ তহবিল নিয়ে বড়ঞার উন্নয়নের জন্য কিছু করেন নি অধির  ।

যদিও অধীর চৌধুরী রাস্তা সংস্কার নিয়ে তৃণমূলকেই নিশানা করেছেন। অধীরের দাবি, জেলার সব বিধায়ক, পঞ্চায়েত সমিতি, পঞ্চায়েত তৃণমূলের হলেও উন্নয়ন করছে না তৃণমূল। হচ্ছে না রাস্তা সংস্কার। রাজনৈতিক তরজার মাঝেও সাধারণ মানুষের অবশ্য দাবি, হাল ফিরুক বাদশাহী সড়কের।