বহরমপুরে বুড়ো হাড়ে ভেলকি দেখাচ্ছেন ক্রীড়াবীদরা।

মধ্যবঙ্গ ওয়েব ডেস্ক, ৪ নভেম্বরঃ বয়স কোনদিন বাঁধা হতে পারে না। শরীর সুস্থ রাখতে ও আনন্দ দিতে খেলার মাঠ কাপালেন বয়স্করাও। বহরমপুর স্টেডিয়ামে হয়ে হেল মাস্টার্স অ্যাথলেটিক মিট। ৩০ থেকে ৮০ বছর বসয়ীদের অংশগ্রহনে হয়ে গেল স্পোর্টস মিট। ভারতের বিভিন্ন রাজ্য ছাড়াও বাংলাদেশ ও শ্রীলঙ্কা থেকে বুড়ো হাড়ে ভেলকি দেখালেন ক্রীড়াবীদরা। এবং আমাদের জেলা থেকে প্রায় ১১৯ জন কাছাকাছি প্রতিযোগী এই প্রতিযোগিতায় অংশগ্রহন করেছিলেন। ষষ্ঠতম বর্ষ এটা ওনাদের। ৪ থেকে ৫ই নভেম্বর পর্যন্ত চলবে এই প্রতিযোগিতা। এটি একটি আন্তর্জাতিক মানের প্রতিযোগিতা।

কারও বয়স ৭০ , তো কারও বয়েস তারও বেশি। তবে তাঁদের কাছে বয়স কোন বাঁধায় নয়। এই বয়সেও ফিট সকলেই। কেউ দৌড়ালেন ১০০ মিটার, কেউ আবার ৫ হাজার মিটার। দৌরের পাশাপাশি ছিল হাইজ্যাম্প থেকে লঙ জ্যাম। ডিসকাস থেকে সর্টপাট সহ সব ধরনেই প্রতিযোগিতায় অংশ নিলেন প্রতিযোগীরা। প্রতিযোগিতায় অংশ নিতে পেরে খুশি প্রতিযোগীরা।

বেঙ্গল মাস্টার্স অ্যাথলেটিক অ্যাসোসিয়েশনের পক্ষ থেকে শনিবার বহরমপুর স্টেডিয়াম ময়দানে এই প্রতিযোগিতায় দেশের বিভিন্ন রাজ্য, দেশের পাশাপাশি মুর্শিদাবাদের ১১৯ জন প্রতিযোগী অংশ নিলেন। খেলার কাছে বয়স যে কোন বাঁধায় নয় তা আবার প্রমান মিলল ময়দানে গিয়ে। রবিবারও চলছে এই ক্রীড়া প্রতিযোগিতা। এদিন প্রতিযোগিতা দেখতে ময়দানে উপস্থিত ছিলেন মুর্শিদাবাদ জেলা পরিষদের সভাধিপতি রুবিয়া সুলতানা সহ বিশিষ্টজনেরা। ইন্টারনেটের দুনিয়ায় যখন যুব সমাজ মাঠ থেকে ক্রমশ্যয় দূরে সরে যাচ্ছে তখন এই বয়সেও শরীর ফিট রাখতে ময়দান কাপাচ্ছে বয়স্করা।