বাড়িতে সিকিউরিটির দাঁড়ানোর যায়গা নেই ! রানিনগরে অপহরণ অভিযোগে নয়া মোড়

মধ্যবঙ্গ নিউজ ডেস্কঃ  হাইকোর্টের নির্দেশের পরেও উঠল  রানিনগর ২ ব্লকে পঞ্চায়েত সমিতির সদস্যকে আটকে রাখার অভিযোগ  ।  পুলিশের বিরুদ্ধে চাঞ্চল্যকর  অভিযোগ পঞ্চায়েত সমিতি সদস্যের পরিবারের। পুলিশের  বিরুদ্ধে  সরব হয়েছেন পঞ্চায়েত সদস্যের বাবা জেন্ডার মল্লিক । উর্মিলা খাতুনের বাবার দাবি, মানা হয় নি আদালতের নির্দেশ।  বুধবার বহরমপুরে কংগ্রেস অফিসে সাংবাদিকের মুখমুখি হয়ে জেন্ডার মল্লিক দাবি করেছেন,  ৮  সেপ্টেম্বর অপহরণ করা হয় মেয়েকে । অভিযোগ,  উর্মিলাকে  নিরাপত্তা দেবার নাম করে নিয়ে যান মোস্তাফা সিরাজ নামের এক স্কুল শিক্ষক।

মঙ্গলবার রানীনগর ২ নম্বর পঞ্চায়েত সমিতি সদস্য  ঊর্মিলা খাতুনকে পুলিশি নিরাপত্তার নির্দেশ দেন  কলকাতা হাইকোর্টের বিচারপতি জয় সেনগুপ্ত ।  কংগ্রেসের অভিযোগ ছিল,  ৮ই সেপ্টেম্বর অপহরণ করা হয় কংগ্রেসের প্রতীকে  জয়ী উর্মিলা খাতুনকে ।   মঙ্গলবার তাঁকে পুলিশি নিরাপত্তায় বাড়ি পৌঁছে দেওয়ার নির্দেশ দেন বিচারপতি জয় সেনগুপ্ত। দেওয়া হয় পুলিশি নিরাপত্তা দেওয়ার নির্দেশেও ।     এর আগে ১০ সেপ্টেম্বর কংগ্রেস ছেড়ে তৃণমূলে যোগ দেন উর্মিলা খাতুন।  মঙ্গলবার আদালতে উর্মিলা জানান, নিজের বাড়িতে ফিরতে চান তিনি। তবে থানায়  ৩ ঘন্টার বৈঠকে বদলে গেল ছবি। বুধবার সাংবাদিক বৈঠক করে,   রানিনগর ২ পঞ্চায়েত সমিতির সদস্য উর্মিলা খাতুনও। যদিও তার মুখে শোনা গিয়েছে উলটো বয়ান।

ঘটনায় ঘুরে ফিরে আসছে মোস্তফা সিরাজ নামের  রানিনগর ২ ব্লকের এক শিক্ষকের  নামও। ওই শিক্ষকের  দাবি, বাড়িতে নিরাপত্তা নেই । নিরাপত্তারক্ষীদের দাঁড়ানোর জায়গাও নাকি নেই। তাই নাকি তার বাড়িতেই আছেন উর্মিলা