মুর্শিদাবাদে বেসরকারি মেডিক্যাল কলেজে গ্রিন সিগন্যাল রাজ্যের

মধ্যবঙ্গ নিউজ ডেস্কঃ  মুর্শিদাবাদের জঙ্গিপুরে তৈরি হবে জেলার প্রথম বেসরকারি মেডিক্যাল কলেজ। জঙ্গিপুরের তৃণমূল বিধায়ক জাকির হোসেনের প্রতিষ্ঠান এই কলেজ তৈরির জন্য রাজ্যর অনুমোদন চেয়েছিল। মিলেছে রাজ্যের অনুমোদন।  ‘জাকির হোসেন মেডিক্যাল কলেজ অ্যান্ড রিসার্চ সেন্টার’ নামে এই কলেজ তৈরী হবে রঘুনাথগঞ্জ থানায় জামুয়ার গ্রাম পঞ্চায়েতের প্রসাদপুর গ্রামে। ইতিমধ্যেই রাজ্যের স্বাস্থ্য বিদ্যালয়ের পক্ষ থেকে মিলেছে গ্রিন সিগিন্যাল।
২৭ নভেম্বর  এই প্রস্তাবিত মেডিক্যাল কলেজে এমবিবিএস কোর্সের  অনুমোদন দিয়েছে ‘দ্যা ওয়েস্ট বেঙ্গল ইউনিভার্সিটি অফ হেলথ সায়েন্সেস’। স্বাস্থ্য বিশ্ববিদ্যালয়ের পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে ১৫০ জন ছাত্রছাত্রী ভর্তি হতে পারবেন এই প্রস্তাবিত কোর্সে। তবে চুড়ান্ত অনুমতি দেবে কেন্দ্রের ন্যাশনাল মেডিক্যাল কমিশন।
২০১২ সালে পড়াশোনা শুরু হয় জেলার একমাত্র মেডিক্যাল কলেজ, মুর্শিদাবাদ মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে। সেখানে সিট সংখ্যা ১২৫। রাজ্যে সরকারি মেডিক্যাল কলেজের সংখ্যা ২৬।
রাজ্যে রয়েছে ৭ টি বেসরকারি মেডিক্যাল কলেজ। যদিও নদীয়া, মুর্শিদাবাদ, মালদা থেকে উত্তরবঙ্গের কোন জেলাতেই এখনও অবধি বেসরকারি মেডিক্যাল কলেজ গড়ে ওঠেনি। বিড়ি শিল্পের মালিক হিসেবে পরিচিত জাকির  বেশ কিছু বছর ধরেই বিনিয়োগ করছেন খাদ্যপ্রক্রিয়াকরণ, স্বাস্থ্য, শিক্ষার মতো ক্ষেত্রে। এই নতুন মেডিক্যাল কলেজ জেলার শিক্ষা মানচিত্র গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা নেবে বলেই আশাবাদী শিক্ষামহলের একাংশ।