Primary Education Board-এর বার্ষিক ক্রীড়াসূচি বদল

ফেব্রুয়ারির ১৫ ও ১৬ তারিখ বহরমপুর স্টেডিয়ামে (Stadium) এই প্রতিযোগিতা হওয়ার কথা ছিল

নিজস্ব সংবাদদাতা, বহরমপুরঃ বদলে গেল রাজ্য প্রাথমিক শিক্ষা পর্ষদের (Primary Education Board) বার্ষিক ক্রীড়াসূচি। এবারই প্রথম পর্ষদের বার্ষিক ক্রীড়া প্রতিযোগিতার আসর বসতে চলেছে মুর্শিদাবাদে (Murshidabad)। ফেব্রুয়ারির ১৫ ও ১৬ তারিখ বহরমপুর স্টেডিয়ামে (Stadium) এই প্রতিযোগিতা হওয়ার কথা ছিল। সেই ক্রীড়া প্রতিযোগিতা হবে মার্চ মাসের ৯ ও ১০ তারিখ। সোমবার পর্ষদ জেলা বিদ্যালয় পরিদর্শক (District School Inspector) ও জেলা প্রাথমিক শিক্ষা সংসদ ( District primary council) -এর চেয়ারম্যানকে লিখিতভাবে এ কথা জানিয়েছে।

রাজ্যের ২৩টি জেলার পড়ুয়ারা এই প্রতিযোগিতায় অংশগ্রহণ করবেন। সেখানে উপস্থিত থাকবেন রাজ্যের শিক্ষামন্ত্রী ব্রাত্য বসু, পর্ষদের সভাপতি প্রমুখ রাজ্যে শিক্ষা বিভাগের শীর্ষ কর্তারা। সাফল্যের সঙ্গে এই প্রতিযোগিতা উতরোতে জেলা প্রাথমিক সংসদ ( District primary council) কে দায়িত্ব দেওয়া হয়েছে লিখিতভাবে। মুর্শিদাবাদে (Murshidabad) এবারই প্রথম এই প্রতিযোগিতা হওয়ায় স্বাভাবিকভাবেই জোরদার প্রস্তুতি শুরু হয়েছিল শিক্ষক মহলে।

রাজ্য প্রাথমিক শিক্ষা পর্ষদের (Primary Education Board) লিখিত নির্দেশে জানানো হয়েছে অনিবার্য কারণে (Unavoidable circumstances) এই সূচি বদলানো হয়েছে। সূত্রের দাবি, সরস্বতী পুজোর পরের দিনই ছিল  এই ক্রীড়া প্রতিযোগিতার প্রথম দিন। দূরদুরান্ত থেকে ভিন জেলার ছেলেমেয়েদের জেলায় আসতে হলে পুজোর দিনেই আয়োজক জেলা মুর্শিদাবাদে আসতে হত। অনেক স্কুলেই পুজোর আয়োজন করা হয়। সেই পুজো পেছনে ফেলে ক্রীড়া প্রতিযোগিতায় অংশগ্রহণ করা নিয়ে আপত্তি ওঠে একাংশ স্কুল শিক্ষকদের। তাদের দাবিকে মান্যতা দিয়েই দিন বদলে ফেলা হয়েছে বলে দাবি সূত্রের।

জেলা  প্রাথমিক শিক্ষা সংসদ ( District primary council ) সূত্রে জানা যায়, ভিন জেলা থেকে দু-দিনের জন্য আগত পড়ুয়া, তাদের অভিভাবক, গাইড টিচার, টেকনিশিয়ানদের জন্য বহরমপুর স্টেডিয়াম সংলগ্ন নয়া শ্রমিক ভবন ও বহরমপুর কৃষ্ণনাথ কলেজ স্কুলকে বেছে নেওয়া হয়েছে। শিক্ষকদের জন্য লালবাগের যুবাবাসকে বেছে নেওয়া হয়েছে। তাছাড়াও বহরমপুর ট্যূরিস্ট লজ সহ একাধিক বেসরকারি লজ ভাড়া নেওয়া হয়েছে।

আরও পড়ুনঃ রাজ্য প্রাথমিক শিক্ষা পর্ষদের বার্ষিক ক্রীড়া প্রতিযোগিতার আসর বসবে বহরমপুর স্টেডিয়ামে

জেলা স্তরের প্রতিযোগিতার প্রথম স্থানাধিকারিকাই রাজ্য স্তরের প্রতিযোগিতায় অংশগ্রহণ করবেন। অর্থাৎ প্রত্যেকটি বিভাগে ২৩ জন করে প্রতিযোগি অংশগ্রহণ করবেন। তাদের নিয়েই হবে রাজ্য পর্যায়ের প্রতিযোগিতা। জেলায় সাফল্যের হার বাড়াতে ছ তারিখ এদিনের বিজয়ী খেলোয়ারদের জন্য বিশেষ শিবিরের আয়োজন করা হয়েছিল।