Nashipur Rail Bridge ২০ বছর পর মিলল ৭ কিলোমিটার রেল লাইন , আক্ষেপও

Nashipur Rail Bridge: ২০০৪ থেকে ২০২৪ সালের ২ রা মার্চ। দীর্ঘ অপেক্ষার অবসান । কৃষ্ণনগরের সভা থেকে মুর্শিদাবাদ ও আজিমগঞ্জ স্টেশনের মাঝে ৭ কিলোমিটার রেল লাইনের উদ্বোধন করলেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী (Narendra Modi) । মুর্শিদাবাদ স্টেশন থেকে নশীপুর রেলব্রিজ (Nashipur Rail Bridge)  হয়ে এই লাইন চলে যাবে আজিমগঞ্জ জংশন  স্টেশন ( Azimgunj Junction) । একদিকে জমি নিয়ে জট অন্যদিকে  রাজনৈতিক নেতাদের দড়িটানাটানি । এই নতুন লাইনের উদ্বোধন হতে লেগে গেল  ২০ টা বছর।

 

২০০৪ সালে তৎকালীন  রেলমন্ত্রী লালুপ্রসাদ যাদব নশিপুরে রেল সেতুর (Nashipur Rail Bridge)  শিলান্যাস করেছিলেন। সেই সময়  মঞ্চে ছিলেন তৎকালীন  প্রতিরক্ষামন্ত্রী প্রণব মুখার্জী, বহরমপুরের  সাংসদ অধীর চোধুরী , মুর্শিদাবাদের তৎকালীন সাংসদ  মান্নান হোসেন। সেদিন রেলপথ ও  ভাগীরথী নদীর উপর নশীপুর রেল সেতুর শিলান্যাস হলেও কেন চালু করা যায় নি ট্রেন চলাচল ? মুর্শিদাবাদ জেলাবাসীর দাবি, নাম কেনার রাজনীতিই এর সব থেকে বড় কারণ।

সেই সেতুর উপর দিয়ে যাওয়া রেল লাইনের উদ্বোধন হল ২০২৪ সালের ২ রা মার্চ ! যদিও , রেল লাইনের ক্রেডিট কার ? এই নিয়ে লোকসভা ভোটের আগে ফের সরগরম রাজনীতি। স্থানীয়দের আশা ছিল, নশিপুর রেল সেতু, নয়া রেল লাইন নিয়ে মুখ খুলবেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্রমোদী। কীভাবে এই সেতু মাধ্যমে বদলে যাবে জেলার পর্যটনের মানচিত্র, চলবে কোন ট্রেন তা শোনার অপেক্ষায় ছিলেন সকলেই। কিন্তু মুর্শিদাবাদ বাসীর আক্ষেপ, নশিপুর নিয়ে কিছুই বললেন না নরেন্দ্র মোদী।বৃহস্পতিবার দুপুরে নসীপুরে ব্রিজের উপর দিয়ে প্রথম প্যাসেঞ্জার ট্রেন চলে । হয় স্পিড টেস্ট। শনিবার হয় নতুন  লাইনের উদ্বোধন । জেলাবাসীর  আশা,   খুব শিগগিরই এই লাইনে  যাত্রী নিয়েও ছুটবে ট্রেনও।