কম জলেই পচবে পাট ! কীভাবে ? দেখে নিন…

নিজস্ব সংবাদদাতা, বহরমপুরঃ মুর্শিদাবাদ জেলার একটা বড় অংশ জুড়ে হয় পাট চাষ। কৃষি দপ্তর সূত্রের খবর, মুর্শিদাবাদের মধ্যে বহরমপুর ব্লকেই প্রায় ১০০০০ হেক্টর এলাকায় হয় পাটের চাষ। তবে এবছর বৃষ্টি নেই! জলের অভাবে নাজেহাল অবস্থা পাট চাষীদের। জমিতে থরে থরে পরে রয়েছে পাট। পাটের গোঁড়া লাল হয়ে যাচ্ছে, কোথাও বা জমিতেই পরে রয়েছে পাট। এই বছর পাট চাষীদের আকালের বছর। কোথাও একটু জল পেলে সেখানেই চলছে পাট জাগ দেবার কাজ। তবে সেই জলের পরিমানও খুবই সীমিত।

সময় বলছে আষাঢ় গড়িয়ে শ্রাবণ। এই সময় ধান চাষের মোক্ষম সময়। কিন্তু জমি থেকে পাট না উঠলে ধান লাগাবেন কোথায় প্রশ্নের মুখে চাষীরা। নিয়াল্লিশপাড়ার এক পাটচাষী বীরেন চৌধুরী বলছেন, যাঁদের ক্ষমতা আছে তাঁরা জলের ব্যবস্থা করে পাট জাগ দিচ্ছেন কিন্তু যাঁরা পারছেন না তাঁরা আর এবছর পাট চাষ করে লাভের মুখ দেখতে পাবেন না।

জলের অভাবের কথা আগে থেকেই আঁচ করেছিলেন কৃষি বিশেষজ্ঞরা। কম জলেও কীভাবে পাট জাগ দেওয়া যাবে তা জানানো বহরমপুর ব্লকের কৃষি বিভাগের পক্ষে। জমির আলে প্লাস্টিক পেতে সেখানে জল জমিয়ে রাসায়নিক দিয়ে পাট জাগ দেওয়া যাবে বলছেন বিশেষজ্ঞরা। তার জন্য কৃষি দপ্তর থেকে বিতরণ করা হচ্ছে রাসায়নিকও।

বহরমপুর ব্লকে বিতরণ করা হচ্ছে পাট পচাবার অত্যাধুনিক রাসায়নিক সার। ছবি – দেবনীল

পাট পচাবার পর্যাপ্ত জল না পেলে এই পদ্ধতি অবলম্বন করে উন্নত মানের পাট চাষ করা যাবে বলেই জানাচ্ছেন কৃষি বিশেষজ্ঞরা।