ট্রেনে কাটা পড়েও বলছেন কথা। ঘটনা দেখে শিউরে ওঠেন প্রত্যক্ষদর্শীরা

মধ্যবঙ্গ নিউজ ডেস্কঃ ট্রেনে চাপতে গিয়ে অসাবধানতাবশত লাইনে পরে ট্রেনের চাকায় কাটা পড়েন এক ব্যাক্তি। রবিবার বিকেলে এই ঘটনায় ব্যাপক চাঞ্চল্যের সৃষ্টি হয়েছে সামসেরগঞ্জের বাসুদেবপুর স্টেশনে। এখনও পর্যন্ত পরিচয় পাওয়া যায়নি। ট্রেনে কাটা পরা সত্ত্বেও কিছু সময়ের জন্যে জীবিত ছিলেন ওই ব্যাক্তি। কিন্তু তারপরেই মৃত্যু হয় ওনার। দুর্ঘটনার খবর পাওয়ার মুহূর্তের মধ্যেই ঘটনাস্থলে পৌঁছায় রেল পুলিশ।

স্থানীয় সূত্রে খবর, রবিবার বিকেলে জামালপুর থেকে কাটোয়াগামী ট্রেন যাচ্ছিল। এবং সেই ট্রেন ধরতে বাসুদেবপুর স্টেশনে আসেন ওই ব্যাক্তি। এবং কোন কারণ বসত দৌড়ে ওঠার চেষ্টা করে ব্যাক্তিটি। এবং সেই সময় নিজেকে সামলাতে না পেরে। পা পিছলে পরে যান এবং। চলন্ত ট্রেনের মাঝখানে পরে যান ওই ব্যাক্তি। এবং সেই মুহূর্তেই কাটা পরেন ব্যাক্তিটি।

এরফলে দ্বিখণ্ডিত হয়ে যায় ব্যাক্তিটির শরীর। রেল লাইনের একদিকে পরে থাকে দেহের এক অংশ এবং বাকি অংশ লাইনের ওপর দিকে। এইভাবেই পরে থাকতে দেখা যায় কিছুক্ষুন। নিমিষেই ভাইরাল হয়ে যায় সেই ভিডিও। এবং সেই ভিডিও দেখে মনে হয় কিছু বলার চেষ্টা করছেন উনি। হয়ত বলছেন বাঁচাতে তাকে। কারণ এমন সময় মানসিকভাবে সব ফাঁকা হয়ে যায়। খালি পরে থাকে বাঁচার অদম্য ইচ্ছে টুকুই।

প্রত্যক্ষদর্শী সূত্রের খবর, “অজ্ঞাত পরিচয় ওই ব্যক্তি বাসুদেবপুরে জামালপুর-কাটোয়া ট্রেন ধরতে স্টেশনে আসেন। ট্রেনে উঠতে গিয়ে অসাবধানতাবশত পড়ে গিয়ে মৃত্যু হয় তাঁর। ট্রেন বেড়িয়ে যাওয়ার পর আমরা দৌড়ে আসি ওনার কাছে, তখনও দেখি উনি বেঁচে রয়েছে। এবং কিছু বলার চেষ্টা করছিলেন। আমরা সাথে সাথে খবর দেয় রেল পুলিশকে এবং পাশাপাশি খবর দেওয়া হয় হাসপাতালেও”। ঘটনায় ব্যাপক চাঞ্চল্য ছড়ায় এলাকায়। প্রথমে সামশেরগঞ্জ হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয় ওই ব্যক্তিকে। তার পর তাঁকে স্থানান্তরিত করা হয় মুর্শিদাবাদ মেডিক্যাল কলেজে। সেখানেই মৃত্যু হয় সেই ব্যাক্তির।