টাকা দিয়ে চাকরি! নবগ্রামের প্রাথমিক বিদ্যালয়ের চার শিক্ষক গ্রেফতার।

মধ্যবঙ্গ নিউজ ডেস্কঃ নিয়োগ দুর্নীতি মামলায় এবার খোদ শিক্ষককেই গ্রেফতার করল পুলিশ। জেলে পাঠানোর নির্দেশ দিল হাইকোর্ট। অভিযুক্ত চারজন শিক্ষকই মুর্শিদাবাদের নবগ্রামে স্কুলে শিক্ষকতা করতেন। নবগ্রাম কুসুমকামিনী প্রাথমিক বিদ্যালয়ের শিক্ষক জাহিরুদ্দিন সেখ, সিঙ্গার পশ্চিমপাড়া প্রাথমিক বিদ্যালয়ের শিক্ষক সায়গল হোসেন, খোজারডাঙ্গা প্রাথমিক বিদ্যালয়ের শিক্ষক সিমার হুসেন ও মাধুনিয়া প্রাথমিক বিদ্যালয়ের শিক্ষক সৌগত মন্ডলকে গ্রেফতার করে জেল হেফাজতের নির্দেশ দিল কলকাতা হাইকোর্ট।
সোমবার আদালতে ডেকে চার শিক্ষককে জেল হেফাজতের নির্দেশ দিলেন কলকাতা হাইকোর্টের বিচারক অর্পণ চট্টোপাধ্যায়। গ্রেফতার হওয়া চারজনেই মুর্শিদাবাদের নবগ্রামের বাসিন্দা। সোমবার বিকেলে তাঁদের প্রেসিডেন্সি জেলে পাঠানো হয়েছে। প্রসঙ্গত, ২০১৪ সালের প্রাথমিক টেটের পর টাকা দিয়ে তারা চাকরি পেয়েছিলেন বলে সিবিআইয়ের কাছে স্বীকার করে নিয়েছিলেন চার অযোগ্য শিক্ষক। সিবিআইয়ের চার্জশিটে সাক্ষী হিসেবে নাম ছিল এই ধৃত শিক্ষকদের। তাঁদেরকেই এবার ১৪ দিনের জেল হেফাজতে পাঠাল বিচারক। নিয়োগ দুর্নীতিতে এই প্রথম গ্রেফতার করা হল অযোগ্য শিক্ষকদের। নিয়োগ দুর্নীতিতে প্রথমবার চার অযোগ্য শিক্ষক গ্রেফতারের পর সরগরম রাজ্য তথা জেলা।
আদালতের পক্ষ থেকে জানানো হয়, দুর্নীতির দায়ে যারা ঘুষ দিয়েছেন ও যারা ঘুষ নিয়েছেন উভয়পক্ষই সমানভাবে দুষ্ট। তাই এই চারজনকে সাক্ষী নয় অভিযুক্ত হিসেবে জানিয়ে জেল হেফাজতের নির্দেশ দিল হাইকোর্ট। এবার এই দুর্নীতির র‍্যাকেডে কার কার নাম সামনে আসে সেটাই দেখার।