পদ্মায় মাছ ধরতে নেমে মৎস্যজীবীর মৃত্যু সাগরপাড়ায়

নিজস্ব সংবাদদাতা, সাগরপাড়াঃ শীতের পদ্মায় মাছ ধরতে নেমেছিলেন বছর ২৬-এর বিষ্ণুপদ হালদার। কিন্তু নিজের ফেলা জালে জড়িয়ে গেলেন নিজেই। পদ্মার গভীরতায় তলিয়ে গেলেন। চলে গেল মৎস্যজীবীর তরতাজা প্রান।

রবিবার সকালে ঘটনাটি ঘটেছে ভারত বাংলাদেশ সীমান্ত মুর্শিদাবাদের সাগরপাড়া থানার সিংপাড়া এলাকায়। রোজকার মতো সকালে বেড়িয়েছিলেন বাড়ি থেকে। ডোঙা থেকে জাল ফেলেছিলেন। সেই জালে কিছু গন্ডগোল হওয়ায়, জলে পড়ে যান তিনি। তৎক্ষণাৎ ঠান্ডায় বেসামাল হয়ে পড়েন বিষ্ণুপদ। শীতের ভয়ঙ্কর নদীতে নিজের ফেলা জালে জড়িয়ে পড়েন। তলিয়ে যান নদীতে, হয় না শেষ রক্ষা। মৃতের মা নীলা হালদার জানান, “সকালে উঠে রুটি, তরকারি রান্না করে দিয়েছি। বোট নিয়ে বেড়িয়ে গেল। তারপর কিছুক্ষণ বাদেই এই খবর”। পদ্মার কনকনে ঠান্ডাতেই বিষ্ণুপদর মৃত্যু হয়েছে বলে প্রাথমিক অনুমান পরিবারের।

সাত সকালে পদ্মায় মাছ ধরতে নেমে জলে ডুবে মৎস্যজীবীর মৃত্যুর ঘটনায় চাঞ্চল্য ছড়ায় এলাকায়। মৃত যুবক সাগরপাড়া সিংপাড়া কলোনীরই বাসিন্দা। স্থানীয় এক মৎস্যজীবী রবীন্দ্রনাথ হালদার জানান, “বিষ্ণুপদ প্রতিদিনের মতো রবিবার সকালেও পদ্মায় মাছ ধরতে আসেন। এদিন ডোঙা থেকে মাছ ধরার জাল গোটানোর সময় সে অসাবধানতাবশত পরে যায়। প্রচণ্ড ঠান্ডায় সে আর উপরে উঠতে পারেনি। খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে পৌঁছায় বিএসএফ ও পুলিশ। বড় জাল ফেলে বেশ কিছুক্ষণ পর তাঁকে উপরে তোলা হয়। যদিও ততক্ষনে প্রাণ গিয়েছে ওই যুবকের”।

যুবকের মৃত্যুতে শোকের ছায়া এলাকায়।