ভাঙনের স্থায়ী সমাধান, পরিযায়ীর সুরক্ষা আদায়ের দাবিতে জেলায় শুরু ইনসাফ যাত্রা

নিজস্ব সংবাদদাতা, বহরমপুরঃ যুবদের পথে নামিয়ে পঞ্চায়েত ভোটে ডিভিডেন্ড কুড়িয়েছেন সিপিএম নেতারা। তারজন্যমাটি কামড়ে পড়ে থেকে যেমন সরকার বিরোধী আন্দোলন করেছে তেমনি দলের ভাবমূর্তি বদলাতে মানুষের দরজায় দরজায় ঘুরেছেন ডিওয়াইএফআইয়ের নেতা কর্মীরা। আর তা কোনও নির্দিষ্ট দিনে নয়। নাগাড়ে বছরভর ঠাসা কর্মসূচীতে নিজেদের ব‍্যস্ত রেখেছেন ধ্রুবজ‍্যোতী সাহা, মীনাক্ষী মুখোপাধ্যায়রা। তার ফলে মুর্শিদাবাদের মদনপুর পঞ্চায়েতে প্রধানের পদে বসেছেন প্রাক্তন যুবনেতা নাজমুল হক। জলঙ্গি থেকে জেলাপরিষদে গিয়েছেন ইমরান হোসেন। খোদ বহরমপুর পঞ্চায়েত সমিতিতে যে তিনজন জিতেছেন তাদের মধ‍্যে দুজন জিনারুল ইসলাম ও মিজানুল হক যুব সংগঠনের নেতা। রানিনগর পঞ্চায়েত সমিতি দখল করেছে বাম-কংগ্রেস। এখানেও গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করেছে বাম যুবরা।

সেই যুবরাই রাজ‍্যের ‘জ্বলন্ত ইস্যু’কে হাতিয়ার করে লোকসভা নির্বাচনের আগে পথে নেমেছে। চলতি মাসের তিন তারিখ কোচবিহার থেকে শুরু হয়েছে ডিওয়াইএফের ‘ইনসাফ যাত্রা’। শনিবার নভেম্বরের ১১ তারিখেই সেই যাত্রা মুর্শিদাবাদ জেলার একেবারে উত্তরে পৌঁছেছে। পদযাত্রা শেষে ওইদিন ফরাক্কার তিলডাঙায় সভাও হয়েছে। রাত কাটিয়ে রবিবার কালীপুজোর দিন ফরাক্কাতেই দিনভর ইনসাফ যাত্রার কর্মকান্ডে রাজ‍্য নেতাদের পাশাপাশি ব‍্যস্ত ছিলেন জেলা নেতারাও। সোমবার নিউ ফরাক্কা বাসস্ট্যান্ড থেকে শুরু হয়ে বাজার পরিক্রমা করে পদযাত্রা শেষ হয় জামতলা মোড়ে। ফরাক্কা লোকাল কমিটির উপস্থিতিতে এই জমায়েত হয়। পরে বাসে করে ধুলিয়ান পৌঁছান কর্মীরা। সেখানে দুপুরের খাবার খেয়ে ফের ধুলিয়ান থেকে চার কিলোমিটার হেঁটে কাঁকুড়িয়ায় পৌঁছান তাঁরা। সেখানেও মানুষের মুখোমুখি হন বাম যুব নেতারা। এদিন তাঁদের সঙ্গে ছিলেন বামপন্থী অভিনেতা ও নাট‍্যপরিচালক সৌরভ পালোধি।

ইনসাফ যাত্রায় মুর্শিদাবাদ জেলায় ভাঙনের স্থায়ী সমাধানের পাশাপাশি জেলার পরিযায়ী শ্রমিকদের সুরক্ষার দাবি তুলেছেন যুবরা। একইসঙ্গে জেলায় কর্মসংস্থানের দাবিও তুলেছেন তাঁরা। হক আদায়ের এই পদযাত্রায় যুব নেতারা গুরুত্ব দিতে চাইছেন কৃষি ভিত্তিক শিল্পকে। রাজ‍্যের বাম শাসনের শেষ বেলায় সিপিএম নেতারা দাবি করতেন কৃষি আমাদের ভিত্তি, শিল্প আমাদের ভবিষ্যৎ। মূলত সেই দিকেই দৃষ্টি ফেলছেন আন্দোলনরত যুবরা। মুর্শিদাবাদে দশদিনের ঠাসা কর্মসূচিতে ভাঙন, পরিযায়ী, কৃষিকে হাতিয়ার করে ইনসাফ যাত্রার রুটম‍্যাপ তৈরি হয়েছিল সেপ্টেম্বরের ১৭ তারিখেই। সেই অনুযায়ী সোমবার সাজুর মোড়ে পথসভা শেষে রঘুনাথগঞ্জে রাত্রিবাস করবেন নেতারা। মঙ্গলবার সেখান থেকেই ফের শুরু হবে যাত্রা।