বহরমপুরের মানকরায় যুবকের মৃতদেহ উদ্ধার, আটক ২

নিজস্ব সংবাদদাতা, বহরমপুরঃ রাতের অন্ধকারে ঘটল যুবকের রহস্যজনক মৃত্যু। ঘটনাটি ঘটেছে বহরমপুর থানার অন্তর্গত মানকরা এলাকায়। শুক্রবার রাতে মানকরায় রাস্তার ধার থেকে উদ্ধার হয় দেহ। পরিবারের অভিযোগ খুন করা হয়েছে দিলওয়ার হোসেনকে (৩০)। এই ঘটনায় জিজ্ঞাসাবাদের জন্য দুজনকে আটক করেছে বহরমপুর থানার পুলিশ।

পুলিশ সূত্রে জানা যায়, দিলওয়ার বেলডাঙা ঝুলকা বড় বকুলতলা এলাকার বাসিন্দা। মানকরা এলাকায় একটি রেস্টুরেন্ট রয়েছে তাঁর। পরিবারের অভিযোগ খুন করা হয়েছে দিলওয়ারকে। মৃতের বাবা রসুল সেখ জানান, “রাত সাড়ে ন’টার সময় আমার কাছে ফোন আসে। ফোন করে বলে একশো টাকা নিয়ে এসো। তারপর আমরা বায়রাগাচি এলাকায় যেখানে আমার ছেলের দোকান রয়েছে সেখানে গেলামে। গিয়ে দেখলাম আমার ছেলে নেই সেখানে। এদিক সেদিক ফোন করে খোঁজ করা শুরু করলাম। একটু দূরেই একটি স্কুলের সামনে রক্তাক্ত অবস্থায় পড়ে ছিল আমার ছেলে।” রক্তাক্ত অবস্থায় দিলওয়ারকে উদ্ধার করে নিয়ে যাওয়া হয় মুর্শিদাবাদ মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে। সেখানে মৃত বলে জানায় চিকিৎসক।

মৃতের দাদা রাহুল সেখ জানান, “আমার ভাই মাথায় হেলমেট পড়ে ছিল।  আমার সঙ্গে যখন কথা হয় তখন জানায় সঙ্গে ওর ব্যবসার পার্টনার ছিল। বাইক দুর্ঘটনা হলেও মাথায় এত গুরুতর আঘাত পাওয়া সম্ভব নয়। মাথায় আঘাত করে খুন করা হয়েছে ভাইকে।”

এই ঘটনায় চাঞ্চল্য ছড়িয়েছে এলাকায়। পুলিশ মৃতদেহ ময়নাতদন্তের জন্য পাঠায়। কীভাবে যুবকের মৃত্যু হল তা খতিয়ে দেখছে বহরমপুর থানার পুলিশ। এই ঘটনায় পুলিশ জিজ্ঞাসাবাদের জন্য দু’জনকে আটকও করেছে।