“আমি কিছু করিনি” চোখের জলে এজলাস ভাসালেন সুতপা খুনে দোষী প্রমাণিত সুশান্ত

মধ্যবঙ্গ নিউজ ডেস্কঃ “আমি কিছু করি নি”, বিচারকের প্রশ্নে এজলাসে দাঁড়িয়ে জানালেন সুতপা খুনে দোষী প্রমাণিত সুশান্ত চৌধুরী। মঙ্গলবার আদালতে দোষী সাব্যস্ত হয়েছেন সুশান্ত। বুধবার দুই পক্ষের আইনজীবিদের বয়ান শোনেন  বহরমপুরের ফাস্ট ট্র্যাক কোর্টের অতিরিক্ত ও জেলা দায়রা বিচারক সন্তোষ কুমার পাঠক। এইদিন উপস্থিত ছিলেন সরকারী আইনজীবী বিভাস চট্টোপাধ্যায় ও অভিযুক্তপক্ষের আইনজীবী পীযূষ ঘোষ। এজলাসে বিচারকের প্রশ্নে এদিন কেঁদে ভাসিয়েছেন সুশান্ত। তবে বিচারকের প্রশ্নে সুশান্ত বারবার বলেছে “আমি কিছু করি নি” । আগামী কাল এই মাময়ায় রায় দেবে আদালত।

এদিন অপরাধকে ব্যতিক্রমী বলে ফাঁসির আবেদন জানান সরকারী আইনজীবী বিভাস চট্টোপাধ্যায় । তিনি জানান, পরিকল্পনা করেই খুন। ফাঁসির আবেদন জানিয়ে আনা হয়েছে সুপ্রিম কোর্টের দুটি রায়ও।

সুশান্ত চৌধুরীকে ভারতীয় দণ্ডবিধির ৩০২ ধারায় (খুন) এবং ২৮ ধারায় (অবৈধ অস্ত্র) আইনে আগেই দোষী সাব্যস্ত করা হয়েছে । প্রত্যক্ষদর্শীদের সাক্ষ্য গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা নিয়েছে শুনানিতে। তদন্তে  উঠে আসে,  মার্ডার করার আগে সুশান্ত ফ্লিপকার্ট থেকে একটি নকল বন্ধুক কেনেন । যাতে কেও তার কাছে আসলে সেটা দেখিয়ে সে ভয় দেখাতে পারে। এবং মেয়েটির মৃত্যু নিশ্চিত করতে বারবার সে চাকু দিয়ে মেয়েটিকে আঘাত করতে থাকে সব মিলিয়ে ৪২ বার মেয়েটিকে চাকু দিয়ে আঘাত করে। কাজ কী সাজা হবে সুশান্তর ? সেদিকেই নজর শহরের মানুষের।