কংগ্রেস পঞ্চায়েত সদস্যের বাড়িতে বিস্ফোরণ ! চাঞ্চল্য হরিহরপাড়ায়।

মধ্যবঙ্গ নিউজ ডেস্কঃ সাত সকালে পঞ্চায়েত সদস্যের বাড়িতে বিস্ফোরণ । ঘটনায় চাঞ্চল্য ছড়াল হরিহরপাড়ার রুকুনপুর পঞ্চায়েতের কাচারিপাড়া এলাকায়। কংগ্রেস পঞ্চায়েত সদস্যের বাড়ি মজুত থাকা বোমা থেকেই বিস্ফোরণ বলে দাবি তৃণমূলের। যদিও ঘটনায় চক্রান্তের অভিযোগ তুলছে কংগ্রেস নেতৃত্ব। জানা গিয়েছে শুক্রবার বেলা ১০ নাগাদ হটাতই বিস্ফোরণের শব্দে কেঁপে ওঠে হরিহরপাড়ার রুকুনপুরের কাচারিপাড়া এলাকা। স্থানীয়দের দাবি বোমা ফেটেই এমন ঘটনা ঘটেছে।

স্থানীয় বাসিন্দা জুল্লু রহমান জানান, তখন সকালের সময়। হঠাৎ বিকট শব্দ হয়। গ্রামের সবাই সেই সময় চায়ের দোকানে ছিল। আমরা ভেবেছি কোন টায়ার বাস্ট হয়েছে তাই চুপচাপ ছিলাম। কিন্তু তারপরে দেখলাম পুলিশের গাড়ি ঢুকতে শুরু করল। পরে জানতে পারলাম বোম ফেটেছে। এর আগে কোনোদিন এমন ঘটনা ঘটেনি। কাচারিপাড়া এলাকায় পঞ্চায়েত পঞ্চায়েত সদস্য মুর্শিদা খাতুনের বাড়ির সিঁড়ির নিচে বিস্ফোরণ ঘটে । খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে পৌঁছায় পুলিশ। যদিও বিস্ফোরণ নিয়ে মুখ খুলতে নারাজ পরিবারের সদস্যরা। যখন বোম ফাটে তখন বাড়িতে মেম্বার বা অন্যান্য সদস্য কেওই ছিলনা। এমনটাই বলছেন পরিবারের অন্যান্য সদস্যরা।

হরিহরপাড়ার ব্লক কংগ্রেস সভাপতি জাহাঙ্গীর শাহ্‌ জানান, ‘বিরোধীরা পঞ্চায়েত ভোট থেকেই এই সমস্ত বোমা জমিয়ে রেখেছিল। হরিহরপাড়ায় নিত্যদিন বোমা উদ্ধারের কথা উঠছে। এইগুলি সব তৃনমূল কংগ্রেসের সাহায্যে লোকাল তৃনমূল নেতারায় করছে।’ এই ঘটনায় স্থানীয় তৃণমূল নেতৃত্বরা দাবি করেন যে, পঞ্চায়েত ভোটের সময় মজুত করা হয়েছিল বোমা। সেই মজুত করা বোমায় এদিন বিস্ফোরণ ঘটে। যদিও তৃণমূলের অভিযোগ মানতে নারাজ কংগ্রেস নেতৃত্ব। কংগ্রেস নেতৃত্ব এই ঘটনায় চক্রান্তের অভিযোগ তুলছে। পুলিশ তদন্ত শুরু করেছে। এবং কীভাবে এই বোমা এল বা কে বা কারা আনল সেই সমস্ত বিষয় খতিয়ে দেখছে হরিহরপাড়ার থানার পুলিশ