সাঁতার প্রতিযোগিয়ায় তিন বিভাগেই বাঙলার জয়জয়কার !

মধ্যবঙ্গ নিউজ ডেস্কঃ  ৮১ কিলোমিটার থেকে ১৯ কিলোমিটার সাঁতারের দুই বিভাগেও বাংলার সাঁতারুদের জয়জয়কার। ৮১ কিলোমিটার সাঁতারে চ্যাম্পিয়ান হয়েছেন বাঙালি সাঁতারু প্রত্যয় ভট্টাচার্য। ১৯ কিলোমিটার সাঁতারে পুরুষ বিভাগে প্রথম হয়েছেন গৌরব কাবেরী। ১৯ কিলোমিটার সাঁতারে মহিলা বিভাগে প্রথম হয়েছেন মৌবনি । এদিন বর্ণাঢ্য অনুষ্ঠানে  বিজয়ীদের হাতে পুরষ্কার তুলে দেওয়া হয়।

এদিন সকালে  আহিরণ  ব্যারেজ ঘাট থেকে জলে নামলেন ৮১ কিলোমিটার প্রতিযোগিতায় অংশ নেওয়া  সাঁতারুরা। সুদূর স্পেন, মালয়েশিয়া থেকে থাইল্যান্ড, পার্শ্ববর্তী দেশ বাংলাদেশ সহ দেশ তথা রাজ্যের বিভিন্ন প্রান্ত থেকে আগত প্রতিযোগীরা অংশগ্রহণ করেছেন বিশ্বের দীর্ঘতম সাঁতার প্রতিযোগিতায়। ৮১ কিমি সাঁতারের ফিনিসিং পয়েন্ট ছিল  বহরমপুরের গোরাবাজার কলেজ ঘাটে।৮১ কিলোমিটার সাঁতারে চ্যাম্পিয়ান বাঙালি সাঁতারু প্রত্যয় ভট্টাচার্য। হারালেন গত দুইবারের বিজয়ী স্পেনের সাঁতারু হোসে লুই লারোসাকে। এদিন শুরু থেকেই এগিয়ে ছিলেন প্রত্যয়। ২০১৯ সালে জিয়াগঞ্জ থেকে ১৯ কিলোমিটার সাঁতারে প্রথম স্থানে ছিল প্রত্যয়। বর্ধমানের চিলড্রেন্স কালচারাল সেন্টার ক্লাবের হয়ে এবার এবার ৮১ কিলোমিটার সাঁতর প্রতিযোগিতায় নেমেছিলেন প্রত্যয় ভট্টাচার্য। এবার ৮১ কিলোমিটারে ২৪ প্রতিযোগীর মধ্যে ছিলেন ৯ বিদেশী প্রতিযোগীও। সকলকে টেক্কা দিয়ে সবার আগে সাঁতরে ফিনিশং লাইন ছুঁলেন বাংলার ছেলে প্রত্যয়।

১৯ কিলোমিটার সাঁতারে পুরুষ বিভাগে প্রথম হয়েছেন গৌরব কাবেরী। লেক টাউন সুইমিং পুল -ক্লাবের হয়ে সাঁতারে নেমেছিলেন তিনি। ১৯ কিলোমিটার সাঁতারে মহিলা বিভাগে প্রথম হয়েছেন বাংলার মেয়ে মৌবনী পাত্র। কুমারটুলি পার্ক সুইমিং-ক্লাবের হয়ে সাঁতারে নেমেছিলেন তিনি।

সুদীর্ঘ ৭৭ বছর ধরে মুর্শিদাবাদ জেলায় হয়ে আসছে এই সাঁতার প্রতিযোগিতা। কোভিড মহামারীর কারণে তিন বছর বন্ধ থাকলেও এই বছর আবার স্বমহিমায় হতে চলেছে বিশ্বের দীর্ঘতম সাঁতার প্রতিযোগিতা। এই প্রতিযোগিতায় অংশগ্রহণ করবেন বিশ্বের বিভিন্ন দেশ যথা মালয়েশিয়া, স্পেন, শ্রীলঙ্কা, থাইল্যান্ড, বাংলাদেশ থেকে সাঁতারুরা। পাশাপাশি জম্মু কাশ্মীর থেকে তেলেঙ্গানা, মহারাষ্ট্র, কর্ণাটক, গুজরাট ও পশ্চিমবঙ্গ সহ ভারতবর্ষের বিভিন্ন রাজ্য থেকে পুরুষ ও মহিলা সাঁতারুরা এই প্রতিযোগিতায় অংশগ্রহণ করেন ।