কেন্দ্রীয় মন্ত্রীর কাছে জেলায় বিমান বন্দর তৈরির আর্জি অধীরের

নিজস্ব সংবাদদাতা, বহরমপুরঃ পর্যটক প্রিয় জেলা মুর্শিদাবাদে একটি বিমানবন্দর প্রয়োজন। তাহলে দেশের পাশাপাশি বিদেশী পর্যটকরাও জেলার ইতিহাসের সঙ্গে পরিচিত হতে পারবেন। তাই সেখানে একটি বিমানবন্দর তৈরি হলে মন্দ হয় না। সেই আর্জি নিয়ে কেন্দ্রীয় অসামরিক বিমান চলাচল মন্ত্রী জ্যোতিরাদিত্য সিন্ধীয়াকে চিঠি দিলেন বহরমপুরের সাংসদ অধীর রঞ্জন চৌধুরী।

ইতিহাসের জেলা মুর্শিদাবাদ। পর্যটনের মরশুম তো বটেই, ফেলে আসা সময়ের গন্ধ পেতে বছরভর সেখানে চলে পর্যটকের আসা-যাওয়া। একে অপরের মধ্যে দূরত্বের বিস্তর ফারাক হলেও শহর মুর্শিদাবাদ ও নিমতিতার রাজবাড়ীকে এক সুতোয় বেঁধেছে সেই ইতিহাস।

আবার পদ্মার এপারে মুর্শিদাবাদ ওপারে রাজশাহী। স্বাভাবিকভাবেই আন্তর্জাতিক স্তরেও গুরুত্ব রয়েছে মুর্শিদাবাদের।অথচ সেই সব পর্যটকদের ভরসা রেল ও সড়ক পথ। বহরমপুরের সাংসদ তাই কেন্দ্রের উড়ান প্রকল্পে জেলায় তাঁর সাংসদ এলাকায় একটি অসামরিক বিমান বন্দর তৈরির প্রস্তাব দিয়ে চিঠি দিয়েছেন মন্ত্রীকে।

ওই চিঠিতে তিনি এও জানিয়েছেন যদি তা এই সময়কালে নাও তৈরি করা যায় তাহলে যেন স্বত্তর হেলিকপ্টার পরিষেবা চালু করা হয় জেলায়। উড়ান পরিষেবা জেলায় চালু হলে জেলায় পর্যটন শিল্পের বিস্তার বাড়বে  বলে মন্ত্রীকে লেখা  চিঠিতে দাবি করেন অধীর।