দত্তপুকুর কাণ্ডের র‍্যাকেট মুর্শিদাবাদেও !

নিজস্ব সংবাদদাতা, সুতিঃ মুর্শিদাবাদের সুতি থানা এলাকার প্রত্যন্ত গ্রাম চাঁদরা। দত্তপুকুরের বিস্ফোরণ কাণ্ডে এবার মুর্শিদাবাদের সুতির এই গ্রাম খবরের শিরোনামে। দত্তপুকুর কাণ্ডেও মুর্শিদাবাদ যোগ। মুর্শিদাবাদের সুতি থেকেই দত্তপুকুরের সেই বাজি কারখানায় কাজে গিয়েছিলেন অনেকেই। তার মধ্যে মৃত্যু হয়েছে মুর্শিদাবাদেরই পাঁচজনের।

রবিবার সকালে বিস্ফোরণে কেঁপে ওঠে উত্তর ২৪ পরগনা জেলার দত্তপুকুর এলাকার মোচপোল গ্রাম। এখনও পর্যন্ত পাওয়া খবরে এই বিস্ফোরণের মৃত্যু হয়েছে মুর্শিদাবাদের পাঁচজনের। সকলেই মুর্শিদাবাদের সুতি থানায় জগতাই ২ নম্বর গ্রাম পঞ্চায়েতের নতুন চাঁদরা গ্রামের বাসিন্দা। তাঁদের মধ্যে রয়েছেন দুইজন কিশোর, বাকি তিনজন প্রাপ্তবয়স্ক। ঘটনায় চাঞ্চল্যকরভাবে মৃত্যু হয়েছে রনি সেখ নামের এক কিশোরের।

প্রসঙ্গত, ২০২১ সালের ১৭ ফেব্রুয়ারি রাতে রাজ্যের তৎকালীন মন্ত্রী জাকির হোসেনের উপর বোমা হামলার ঘটনা ঘটে নিমতিতা স্টেশনে। বিধায়ক জাকির হোসেনের উপর হামলার অভিযোগে হাজতে রয়েছেন রনি সেখের বাবা ঈশা সেখ। আর এবারে দত্তপুকুর বিস্ফোরণ কান্ডে মৃত্যু হল রনি সেখের। মৃত্যু হয়েছে জেরাত সেখ ও তাঁর বছর কুড়ির ছেলে আন্দাজ সেখ, বছর সতেরোর ছোটন সেখেরও। দুই ভাই কাজে গিয়েছিলেন বাবা জেরাত সেখের সাথেই। ঘটনায় মৃত্যু হয়েছে জেরাত সেখেরই খুড়তুতো ভাই কলেজ সেখেরও।

এখন থমথমে সুতির জগতাই ২ নম্বর গ্রাম পঞ্চায়েতের নতুন চাঁদরা গ্রাম। প্রাণ গেল জেলার পাঁচজনের এ কী নিতান্তই দুর্ঘটনা নাকি এর পিছনে কাজ করছে বড় কোনও র‍্যাকেট?