Abhijit Gangopadhyay: জনগণের দরবারে বিচারপতি, বহরমপুরে দিয়েছিলেন ইঙ্গিত

Abhijit Gangopadhyay: কলকাতা হাইকোর্টের বিচারপতির পদ ছেড়ে বিজেপি প্রার্থী হচ্ছেন অভিজিৎ গঙ্গোপাধ্যায় (Abhijit Gangopadhyay)  । এটাই এখন রাজ্যের সব থেকে বড় খবর।  দিনক্ষণ ঘোষণা না হলেও লোকসভা নির্বাচনের (Loksabha Election 2024 )  বাদ্যি বেজে গিয়েছে ।  তার আগেই বড় সিদ্ধান্ত জানালেন  কলকাতা হাইকোর্টের বিচারপতি অভিজিৎ গঙ্গোপাধ্যায়। ইস্তফা দেবার সিদ্ধান্ত নিলেন তিনি। নিয়োগ দুর্নীতি মামলাকে প্রকাশ্যে এনে একের পর এক গুরুত্বপূর্ণ রায় দিয়ে রাজ্য রাজনীতির শিরোনামে আসেন বিচারপতি অভিজিৎ গঙ্গোপাধ্যায় । এবার বিচারপতির পদ ছেড়ে বৃহত্তর ক্ষেত্রে যাবার সিদ্ধান্ত অভিজিৎ গঙ্গোপাধ্যায়ের। সূত্রের খবর, তমলুক কেন্দ্র ( Tamluk Loksabha)  থেকে প্রার্থী হতে পারেন বিচারপতি গঙ্গোপাধ্যায়।

 

রবিবার একটি টিভি চ্যানেলে দেওয়া সাক্ষাৎকারে পদত্যাগের ঘোষণা করেন   বিচারপতি গঙ্গোপাধ্যায়। তিনি জানান, “আমার জীবনের গুরুত্বপূর্ণ সিদ্ধান্ত তো বটেই। আমি খুব শীঘ্র পদত্যাগ করতে চলেছি বিচারপতির পদ থেকে। মঙ্গলবার ইস্তফা দেব” । কিন্তু কেন ইস্তফা, কারণ ব্যাখ্যা করে তিনি বলেন,  “ এই সিদ্ধান্তের বিশদ কারণ পরে বলব। আজ শুধু এটুকু বলব যে, আদালতে আমি যে কাজটা করি, সেই কাজের সময়টা শেষ হয়েছে। এখন হয়ত আমাকে বৃহত্তর ক্ষেত্রে যেতে হবে, মানুষের মধ্যে। আমি একটা বৃহত্তর ক্ষেত্রে পদার্পণ করতে চাই। কারণ আদালতে তাঁরাই আসেন, যাঁরা মামলা করতে চান। তার বাইরে বহু মানুষ পরে  থাকেন। আমার মনে হয়েছে বিচারব্যবস্থায়, আদালত নামের যে প্রতিষ্ঠান, যেখানে ছ’বছর বিচারপতি হিসেবে কাজ করলাম, সেখানে আমার কাজ শেষ হয়েছে। এখানে আর নতুন করে কিছু করার নেই।”

 

এই ঘোষণার পরেই শুরু হয়েছে জল্পনা না। জাস্টিস গঙ্গোপাধ্যায় তবে কী এবার রাজনীতির ময়দানে নামছেন? লোকসভা নির্বাচনে অংশ নেবেন তিনি? কোন দলে? উঠছে প্রশ্ন।  গত ডিসেম্বরে একটি স্বেচ্ছাসেবী সংস্থার অনুষ্ঠানে বহরমপুরে ( Berhampore)  এসেছিলেন জাস্টিস গঙ্গোপাধ্যায়। সেখানে এসে অনুষ্ঠানের মঞ্চ থেকে বলেছিলেন, অবসরের পর তিনি লেখা লিখি নিয়ে থাকবেন ও মানুষের জন্য কাজ করবেন। বিচারপতির মুখে মানুষে জন্য কাজ করার কথাতেই রাজনীতির সূত্র খুঁজেছেন অনেকেই। বিচারপতির একাধিক মন্তব্য ঘিরেও সরগরম হয়েছে রাজনীতি। তবশেষে বিচারপতি জানান,  মঙ্গলবার ইস্তফা দেবেন তিনি।