ভোটের মুখে ১৮ নেতাকে বহিষ্কার মুর্শিদাবাদে , কড়া বার্তা শাওনীর TMC expelled rebels

অবশেষে  ১৮ নির্দল প্রার্থীকে  বহিষ্কার করল  তৃণমূলের বহরমপুর মুর্শিদাবাদ জেলা নেতৃত্ব।  রবিবার রাত্রে একঝাঁক নেতাকে বহিষ্কার করেছে তৃণমূল কংগ্রেসের জঙ্গিপুর সাংগঠনিক জেলা নেতৃত্ব। সোমবার  মুর্শিদাবাদের ৫ টি পৌরসভার এরকম ১৮ জনকে বহিষ্কার করল তৃণমূল ।

২৭ শে ফেব্রুয়ারি পৌরসভা ভোটের আগে নির্দল কাঁটা সরাতে কড়া পদক্ষেপ বহরমপুর মুর্শিদাবাদ সাংগঠনিক জেলা তৃণমূল কংগ্রেসের। সোমবার দুপুরে সভাপতি শাওনি সিংহ রায় সাংবাদিক সম্মেলন করে বহিষ্কৃতদের নাম প্রকাশ্যে আনলেন। শাওনী  জানান, ৫ টি পৌরসভায় বহু তৃণমূল কর্মী, প্রাক্তন কাউন্সিলাররা নির্দল হয়েছেন দলীয় প্রার্থীদের বিরুদ্ধে। তাদের বিরুদ্ধেই চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত নিয়েছে দল।

জেলা সংগঠনের তরফে এদিন বহিষ্কৃতদের তালিকায় রয়েছেন মুর্শিদাবাদ পৌরসভার ৬ নম্বর ওয়ার্ডের সোনালি সিংহ রায়, ১০ নম্বর ওয়ার্ডের আশিয়ানা বেগম, ১৩ নম্বর ওয়ার্ডের ভদড়ী মণ্ডল, ৭ নম্বর ওয়ার্ডের বিশ্বজিৎ দে। সোস্যাল মিডিয়ায় তৃণমূলের প্রকাশিত প্রথম প্রার্থী তালিকাতে নাম ছিল বিশ্বজিৎ’এর।

জিয়াগঞ্জ-আজিমগঞ্জ পৌরসভার ২ নম্বর ওয়ার্ডের রাজেশ পাল, ৬ নম্বর ওয়ার্ডের মৌমিতা সরকার, ৮ নম্বর ওয়ার্ডের পরিমল সরকার, ১০ নম্বর ওয়ার্ডের দীপালি সাহাকে বহিষ্কার করেছে তৃণমূল কংগ্রেস।

বেলডাঙা পৌরসভার- ৩ নম্বর ওয়ার্ডের আসমাআরা, ৪ নম্বর ওয়ার্ডে সন্তোষ কুমার ঝাও, ৫ নম্বর ওয়ার্ডে মুস্তাক আহম্মেদ, ৮ নম্বর ওয়ার্ডে রবীন্দ্রনাথ মালাকার, ৯ নম্বর ওয়ার্ডে মহম্মদ আব্দুর রাজ্জাক। ১৪ নম্বর ওয়ার্ডে ভরত কুমার ঝাওরকে বহিষ্কারের কথা জানান তৃণমূল কংগ্রেস নেতৃত্ব।  কান্দী পৌরসভায় ১৪ নম্বর ওয়ার্ডের নির্দল প্রার্থী  ঋতুপর্ণা দাস, ৬ নম্বর ওয়ার্ডের  গৌতম রায়, ৯ নম্বর ওয়ার্ডের  গুরুপ্রসাদ মুখার্জীকেও বহিষ্কার করেছে তৃণমূল।