সুতির গ্রামে শিশুকে মুখে নিয়ে পালাচ্ছিল জন্তু, বাধা দিতে আঁচড়ে কামড়ে দশ গ্রামবাসীকে ক্ষতবিক্ষত করল

মাসুদ আলিঃ মুর্শিদাবাদের সুতিতে  শেয়ালের কামড়ে জখম হলেন  চার মহিলা, দুই শিশু সহ একই গ্রামের দশ জন বাসিন্দা।  বুধবার ভোরে শেয়ালের হানার ঘটনা ঘটে   মুর্শিদাবাদের সুতি থানার উমরাপুর পঞ্চায়েতের বাউড়িপুনির উল্লাপাড়া গ্রামে । তড়িঘড়ি আক্রান্ত বাসিন্দাদের সামসেরগঞ্জের অনুপনগর ব্লক হাসপাতালে নিয়ে আসা হয়।  যদিও অবস্থা আশঙ্কাজনক হওয়ায় একজনকে জঙ্গিপুর মহুকুমা হাসপাতালে রেফার করা হয়েছে। পুরো ঘটনায় উদ্বিগ্ন গ্রামবাসীরা ।

জানা গিয়েছে, এদিন সকালে হঠাতই গ্রামের মধ্যে ঢুকে একটি শিশুকে মুখে  নিয়ে পালানোর চেষ্টা করছিল একটি শেয়াল। গ্রামবাসীরা দেখতে পেয়ে সেই শেয়ালকে তাড়া করে। এর পরেই পাল্টা গ্রামবাসীদের উপর হঠাতই আক্রমন করে শেয়ালটি । শেয়ালের আঁচর, কামড়ে  জখম হন চার মহিলা, দুই শিশু সহ প্রায় দশজন । ঘটনায় ব্যাপক আতঙ্ক ছড়িয়ে পড়ে এলাকায়। তড়িঘড়ি আক্রান্তদের সামসেরগঞ্জের অনুপনগর ব্লক প্রাথমিক হাসপাতালে নিয়ে আসা হয়।

স্থানীয় বাসিন্দাদের দাবি, উল্লাপাড়া গ্রামটি মাঠ সংলগ্ন এলাকা হওয়ায় প্রতি বছরই  এমন ঘটনা ঘটছে।  শেয়ালের হাত থেকে রক্ষা করতে বন দপ্তর ও প্রশাসনকে ব্যবস্থা গ্রহনের আর্জি জানান গ্রামবাসীরা।

 

সোমবার সন্ধ্যেয় মুর্শিদাবাদের  বড়ঞা থানার চৌকি গ্রামে সোমবার সন্ধ্যায় শেয়ালের আক্রমণে গুরুতর জখম হন  চার ব্যাক্তি। আক্রান্তদের উদ্ধার করে কান্দি মহকুমা হাসপাতালে চিকিৎসার জন্য নিয়ে যান  পরিবারের লোকজন।স্থানীয় সূত্রে জানাগিয়েছে, এদিন রাস্তার ধারে দাঁড়িয়ে থাকার সময় অতর্কিতে একটি শেয়াল তাদের ওপর আক্রমণ চালায়। আহতদের শরীরের একাধিক স্থানে আঘাত ছিল।   গ্রামের ভিতরে মানুষের ওপর শেয়ালের আক্রমণের ঘটনায় আতঙ্ক ছড়ায়  এলাকায়।