শেষ দেখে ছাড়ব ; নেতাদের ছাড় নয়ঃ বলছেন চিকিৎসকরা । বহরমপুরে CMOH’কে মারের ঘটনায় জামিন খারিজ ২ জনের।

মধ্যবঙ্গ নিউজ ডেস্কঃ বহরমপুরে জেলা মুখ্যস্বাস্থ্য আধিকারিকের (CMOH)  উপর হামলার ঘটনায় ধৃত দুজনের আবারও জেল ফেহাজতের নির্দেশ আদালতের । গত ১৩  অক্টোবর বহরমপুর শহরে ঘটে তুলকালাম কান্ড। মুর্শিদাবাদ  জেলা পরিষদ সভাধিপতি সামসুজ্জোহা বিশ্বাস  Samsujjjoha Biswas   ও হরিহরপাড়ার বিধায়ক নিয়ামত শেখের Niyamat Sekh   সামনেই আক্রান্ত হন খোদ মুর্শিদাবাদ জেলা মুখ্য স্বাস্থ্য আধিকারিক ডা : সন্দীপ সান্যাল Dr Sandip Sanyal  । স্বাস্থ্য কর্তার নিগ্রহের ঘটনায় ওঠে প্রতিবাদের ঝড়।

এই ঘটনার তদন্তে নেমে ১৬ জনকে গ্রেফতার করে বহরমপুর থানার পুলিশ । ২৯ শে অক্টোবর ধৃত ১৬ জনের মধ্যে শর্তসাপেক্ষে জামিন দেওয়া হয় ১৪ জনকে । মূল দুজন অভিযুক্ত ওয়াদি শেখ ও একমান শেখ এর জামিন খারিজ করে আদালত।  ১১ই নভেম্বর এই দুজনকে ফের কোর্টে তোলা হয়। জামিনের আবেদন করেন অভিযুক্তরা।  বিচারক তাঁদের আরও ১৪ দিনের জেল হেফাজোটের নির্দেশ দেন।

বহরমপুরে সিএমওএইচ’কে মারধর

এদিন ইন্ডিয়ান মেডিকেল এসোসিয়েশন এর বহরমপুর শাখার পক্ষ থেকে আদালত চত্বরে উপস্থিত ছিলেন ডাঃ রঞ্জন ভট্টাচার্য্য Dr Ranjan Bhattacharya , ডাঃ অমরেন্দ্র নাথ রায় Dr Amarendranath Roy , ডাঃ পি ব্যানার্জী Dr P Banerjee  সহ অন্যান্য চিকিৎসকেরা । গতকাল বিধানসভার স্বাস্থ্য বিষয়ক ট্যান্ডিং কমিটির চেয়ারম্যান নির্মল মাজির Dr Nirmal Maji  নেতৃত্বে বৈঠকে আলোচনা করা হয় স্বাস্থ্যকর্মী থেকে চিকিৎসকদের নিরাপত্তা নিয়ে । সেই বৈঠকে উঠে আসে জেলা মুখ্য স্বাস্থ্য আধিকারিকদের উপর নিগ্রহের ঘটনা। এই ঘটনায় আদালতের রায়ে খুশি চিকিৎসকেরা। তবে চিকিৎসকদের দাবি, জামিন পাওয়া ব্যক্তিদেরও শাস্তি হোক।

বহরমপুর আই এম এ’র সম্পাদক ডাঃ রঞ্জন ভট্টাচার্য্য এদিন আদালতে দাঁড়িয়ে বলেন, ” একজন বিধায়ক, জেলা পরিষদের সভাধিপতির উপস্থিতিতে নক্কারজনকভাবে নিগৃহীত করা হয়েছে।  আমরা সবাই দেখেছি। এটা অস্বীকার করার  কোন জায়গা নেই, যে কে প্ররোচিত করেছিল, কে করেনি  । ১৬ জন ও তার সাথে সংগঠিত অপরাধ মূলক ষড়যন্ত্রের  জন্য যারাযারা যুক্ত ছিলেন তিনি যত বড়োই নেতা হোন না কেন, তাঁদের কাউকে যেন ছাড় না দেওয়া হয় । আমরা এর শেষ দেখে ছাড়ব। আমরা বিচারব্যবস্থার উপর আস্থাশীল”। এদিন নাম না করেও বিধায়ক নিয়ামত শেখ, জেলা পরিষদের সভাধিপতিকেই নিশানা করেন ডাঃ রঞ্জন ভট্টাচার্য্য ।

আদালতের নির্দেশকে মান্যতা দিয়ে বিচার ব্যবস্থার ওপর ভরসা রয়েছে বলেই জানান ইন্ডিয়ান মেডিকেল অ্যাসোসিয়েশন এর বহরমপুর শাখার সদস্য,  বিশিষ্ট চিকিৎসক ডাঃ অমরেন্দ্রনাথ রায়। পাশাপাশি সাধারণ  মানুষের চিকিৎসকের প্রতি ভরসা ও সুষ্ঠ পরিবেশে চিকিৎসকদের চিকিৎসা পরিষেবা দেওয়ার বিষয়টি নিয়েও প্রশ্ন তোলেন চিকিৎসকরা ।