বহরমপুরে SFI – DYFI এর অবস্থান বিক্ষোভ ! জ্বালানো হল মুখ্যমন্ত্রীর কুশপুতুল

মধ্যবঙ্গ নিউজ ডেস্কঃ কলকাতার করুণাময়ীতে আন্দোলনরত চাকরি প্রার্থীদের জোর করে তুলে দেওয়া এবং ঘটনাস্থল থেকে আন্দোলনকারীদের গ্রেপ্তারের প্রতিবাদে বহরমপুরে রাজপথে নামল এসএফআই ও ডিওয়াইএফআই। গতকাল রাত থেকে উত্তাল সল্টলেক করুণাময়ী চত্বর। পুলিশের সাথে ধস্তাধস্তিতে ও ১৪৪ ধারা লঙ্ঘন করার জন্য গ্রেপ্তার করা হয় DYFI নেত্রী মীনাক্ষী মুখার্জী সহ প্রায় ২০ জন বাম কর্মী- সমর্থকদের। তাঁদের মুক্তির দাবীতেই  শহরে মিছিল করে এসএফআই ও ডিওয়াইএফআই জেলা কমিটি।

মিছিলের পাশাপাশি বাসস্ট্যান্ডে, ৩৪ নম্বর জাতীয় সড়কের উপর রাস্তায় বসে বিক্ষোভে সামিল হল বাম ছাত্র যুব সংগঠনের সদস্যরা। চাকরী প্রার্থী আন্দোলনের ওপর পুলিশি অত্যাচারের বিরুদ্ধে, এসএসসি টেট সহ সমস্ত শুন্যপদে দুর্নীতিমুক্ত নিয়োগের দাবিতে এবং দুর্নীতিগ্রস্ত চাকরীচোরদের শাস্তির দাবিতে বহরমপুরে মিছিল করে এস.এফ.আই ও ডি.ওয়াই.এফ.আই। শুক্রবার দুপুরে বহরমপুর জেলা কার্যালয় থেকে মিছিল শুরু হয়। বিভিন্ন এলাকা পরিক্রমার পর গীর্জার মোড়ে মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের কুশপুত্তলিকা দাহ করা হয়।

ডি.ওয়াই.এফ.আই জেলা সম্পাদক সন্দীপন দাস বলেন, “ যেভাবে লাথি, ঘুষি মেরে চাকরিপ্রার্থীদের সরানো হয়েছে। এই ঘটনা ঘৃণ্য। তার প্রতিবাদে রাজ্যজুরে রাস্তায় নেমেছে এস.এফ.আই – ডি.ওয়াই.এফ.আই। আজ আমরা বহরমপুরের রাস্তায় নেমেছি। মুখ্যমন্ত্রীর কুশ পুতুল পুড়িয়ে প্রতিবাদ করেছি। এই প্রতিবাদ চলবে। পুলিশের জেলকে বামেরা কোনদিন ভয় পায়নি, পাবেও না।”

করুনাময়ীতে বিক্ষোভরত এস.এফ.আই- ডি.ওয়াই.এফ.আই নেতানেত্রীদের মুক্তির দাবিতে বহরমপুর শহরের রাস্তায় সোচ্চার হন বাম ছাত্র যুব কর্মীরা।