ফের মৃত্যু পরিযায়ী শ্রমিকের, ডোমকলের মহাবুল ফিরলেন না কেরালা থেকে

মধ্যবঙ্গ নিউজ ডেস্কঃ  ফের  কেরলে মৃত্যু হল মুর্শিদাবাদের এক পরিযায়ী  শ্রমিকের। মঙ্গলবার সকালে কেরলের ত্রিশুরের পালাঘাট এলাকায় মৃত্যু হয় ডোমকলের সুলতানপুর নতুনপাড়ার বাসিন্দা মহাবুল মিঞার। দরিদ্র পরিবারের মহাবুল ২০ বছর থেকে কেরলে ইট ভাটায় শ্রমিকের কাজ করতেন । শেষ চার মাস আগে কেরলে যান  ইট ভাটার দেখাশোনার কাজে।  সোমবার স্ত্রী সন্তানের সাথে কথাও বলেন ফোনে।  পরেরদিন মঙ্গলবার সকালে বাড়িতে ফোন আসে মহাবুলের মৃত্যু হয়েছে ।

কেরালা থেকে জানায়, মহাবুল সকালে ব্রাশ করতে উঠে পড়ে যান । তখনিই মৃত্যু হয়  তার। পরিবার ও সহকর্মীদের অনুমান হার্ট এটাকেই মৃত্যু হয়েছে। মৃত্যুর খবর পৌছাতেই কান্নায় ভেঙ্গে পড়েন পরিবারের লোকজন।

মাস খানেক থেকে ডোমকল মহকুমা জুড়ে কেরলে মৃত্যু হয়েছে বেশ কয়েক জন শ্রমিকের। কিছুদিন আগে কেরলে অস্বাভাবিক মৃত্যু হয় সাগরপাড়ার মালোপাড়ার তন্ময় মন্ডলের । এর পাশাপাশি সাগরপাড়ার বারোমাসিয়া এলাকার দেবাশিষ হালদারের মৃত্যু হয় শারিরিক অসুস্থতায়। সাগরপাড়ার নরসিংহপুরের সেন্টু সৈখের মৃত্যু হয় ট্রেন লাইন পারাপার হতে ট্রেনে কাটা পড়েন । অপরদিকে রানিনগরের মুনসিপাড়ার আবুল কাশেমের মৃত্যু হয় গাছ থেকে পড়ে। ডোমকলের নওদাপাড়ার আমিনুল ইসলামের মৃত্যু হয় জলে ডুবে। এবার ডোমকলের সুলতানপুর নতনপাড়ার শ্রমিকের মৃত্যু হল হার্ট এটাকে।

ভিনরাজ্যে শ্রমিকের এরকম মৃত্যুতে স্বভাবতই চিন্তার ভাজ বিভিন্ন পরিবারে।  ডোমকলের মহাবুলের মৃত্যুতে বাড়ির বড় ছেলেকে হারিয়ে শোকস্তব্ধ পরিবারের লোকজন। বাবা মা স্ত্রী সহ দুই সন্তান নিয়ে ছিল দরিদ্র পরিবার। ছেলের মুখ শেষবারের মতো দেখতে মুখ পরিবারের সদস্যরা।