‘ফারজি’ নেটওয়ার্ক নতুন নয় মুর্শিদাবাদে ! জাল নোটে সাবধান। Farzi

মধ্যবঙ্গ ডিজিটাল ডেস্কঃ মুর্শিদাবাদ জেলার রোজকার খবর নিয়ে একটু নাড়াচাড়া করলেই দেখা যাবে, মৃত্যু বা দুর্ঘটনার খবরের পাশাপাশি আরও একটি রেগুলার নিউজ হেডলাইন হল – ‘এত টাকার জালনোটসহ ধৃত এতজন!’ পরিসংখ্যান বলছে প্রতি সাত দিনে জেলার বিভিন্ন প্রান্ত থেকে অন্তত দু’টি খবর এমন পাওয়া যায়। খবরের প্রতি যথাযথ সম্মান প্রদর্শন করেই বলা যেতে পারে এই জেলাতে জাল নোট উদ্ধারের খবর রোজ বাড়ছে বৈ কমছে না। পুলিশ কখনও সর্বনিম্ন পঞ্চাশ হাজার আবার কখনও পঞ্চাশ লক্ষ টাকার জাল কারেন্সি উদ্ধার করেই থাকে। মুর্শিদাবাদের বেশ কিছু অংশে যেহেতু রয়েছে আন্তর্জাতিক বর্ডার তাই এই জেলাকে জাল নোট পাচারকারীদের ‘সফট টার্গেট’ বলা যেতে পারে।

প্রসঙ্গত, জাল নোট ছাপানো ও সেই নোটের হাতবদল একটি জাতীয় সমস্যা। জাতীয় অর্থনীতির ওপর এর প্রভাব সুদূরপ্রসারী। এই নিয়ে পুলিশ প্রশাসনও যথেষ্ট প্রতিক্রিয়াশীল। গত সপ্তাহের খবর অনুযায়ী, শনিবার সন্ধ্যায় মুর্শিদাবাদের ফরাক্কা থানার রানীপুর মোড় সংলগ্ন এলাকা থেকে পঞ্চাশ হাজার টাকার জালনোট সহ রাজু সেখ নামের এক ব্যক্তিকে গ্রেফতার করে পুলিশ – এই জাতীয় খবরের পরিসংখ্যান জেলা তথা রাজ্য তথা দেশে প্রতিনিয়ত বেড়েই চলেছে। এই সমস্যা একটি ‘জ্বলন্ত জাতীয় সমস্যা’। এই জ্বলন্ত জাতীয় সমস্যার ওপর নির্মিত একটি ওটিটি সিরিজ হল ‘ফারজি’।

সদ্যই অ্যামাজন প্রাইমে মুক্তি পেয়েছে রাজ এবং ডিকে পরিচালিত একটি হিন্দি ওয়েব সিরিজ ‘ফারজি’। ‘ফারজি’ শব্দের অর্থ হল নকল। এই সিরিজে খুবই ডিটেইলে দেখানো হয়েছে ভারতের জাল নোটের কারবারি। কীভাবে ছাপানো হয় জাল নোট? কার বা কাদের মদতে এত হাজার কোটি টাকার জাল কারেন্সি প্রস্তুত করা হয়? কোন পথে কীভাবে তা পাচার করে নিয়ে আসা হয় অর্থনীতির অভ্যন্তরে? এই নিয়ে বিস্তারিত রিসার্চ করে তা যথাসাধ্য দর্শক মনগ্রাহী করে সিরিজটি নির্মাণ করেছেন পরিচালকদ্বয়। এই সিরিজে প্রধান ভূমিকায় অভিনয় করেছেন বলিউড সুপারস্টার শাহিদ কাপুর। এই সিরিজের মাধ্যমে ওয়েব সিরিজের দুনিয়ায় ডেবিউ করলেন এই সুপারস্টার।

‘ফারজি’ ওয়েব সিরিজে শাহিদ কাপুরের চরিত্রের নাম সানি ওরফে আর্টিস্ট। সে ছবি আঁকায় যেমন পটু তেমনই পটু বিখ্যাত চিত্রশিল্পীর দুর্মূল্য ছবি নকল করতেও। এই নকল বা ফারজি ছবি এঁকে সাফল্যের নেশায় ও তাঁর দাদুর প্রায় ডুবে যাওয়া অফসেট প্রিন্টিং প্রেস ও ‘ক্রান্তি পত্রিকা’ বাঁচানোর তাগিদে আর্টিস্ট একদিন বন্ধু সহকারী ফিরোজকে সাথে নিয়ে বানিয়ে ফেলে পাঁচশো টাকার ফারজি নোট। ব্যাস সেই শুরু আর্টিস্টের নকল করার বাহাদুরিতে আন্ডার ওয়ার্ল্ড থেকে অসাধু ব্যবসায়ী সকলেই হাতে আকাশ ছুঁয়ে ফেলে। আর ফিরে তাকাতে হয় না আর্টিস্টকে। এই টানটান গল্পের ওপর ভিত্তি করেই আটটি এপিসোডের এই সিরিজটি ইতিমধ্যেই দর্শকদের প্রশংসা পেয়েছে। শাহিদ কাপুর সহ এই সিরিজে অভিনয় করেছেন প্যান ইন্ডিয়ান সুপারস্টার বিজয় সেথুপতি। এছাড়াও এই সিরিজে নেগেটিভ চরিত্রে অভিনয় করে প্রশংসা কুড়িয়েছেন কে কে মেনন।

দেশের একটি ‘জ্বলন্ত সমস্যা’ নিয়ে নির্মিত এই ওয়েব সিরিজটি আসলে খুবই নিপুণতার সাথে জাল কারেন্সির বিভিন্ন দিক প্রকাশ্যে নিয়ে আসে, যা বর্তমান সময়ে প্রচন্ড সময়োপযোগী। কারণ, যখন চারিদিক থেকে পুলিশ এবং ইন্টলিজেন্স কর্তৃক জাল নোট উদ্ধারের খবর আসে, সেই সময়ে ‘ফারজি’ ওয়েব সিরিজটি দর্শকদের এই জ্বলন্ত সমস্যা নিয়ে ভাবনার বিভিন্ন দিক উন্মোচিত করবে বলা যেতেই পারে।