প্রকৃতির আশীর্বাদে পাট চাষে ব্যাপক ফলন ফরাক্কায়

নিজস্ব প্রতিবেদন: পাট চাষে এবছর আবহাওয়া ছিল অনুকূল, বৃষ্টিও হয়েছে বেশিমাত্রায়। বিগত বছরে পাট চাষ করে অনাবৃষ্টির কারনে ক্ষতির মুখে পরার আক্ষেপ মিটেছে পাট চাষিদের। চলতি বছরে মুর্শিদাবাদের ফরাক্কায় পাটের ফলন দেখে মুখে হাঁসি ফুটেছে পাট চাষিদের। এবছর বৃষ্টি বেশি হওয়ায় একদিকে পাটের ফলন ভালো হয়েছে এবং পাটের দাম নিয়েও সন্তোষ প্রকাশ করছেন পাট চাষিরা।

চলতি বছরে পাটের দর উঠেছে চার হাজার ২০০ টাকা। তবে চাষিরা বলছেন, পাট চাষে লেবার মিলছেনা। অনেকেই কাজ করতে আগ্রহ হারাচ্ছেন।

চলতি অর্থ বর্ষে- ১৪৬ জন সমবায় সমিতির সদস্যকে মোট ১ কোটি ২৫ লক্ষ টাকা কৃষি ঋণ দিয়েছে খোদাবন্দপুর সমবায় কৃষি উন্নয়ন সমিতি। এই ঋণ নিয়েই চাষবাস করেন বহু চাষি। অন্যান্য বারের তুলনায় এবছর পাটের দর ভালো থাকায় একদিকে যেমন পাট চাষিরা লাভবান হচ্ছেন অন্যদিকে ঋণ পরিশোধের ক্ষেত্রেও সমস্যা থাকবে না বলেই আশাবাদী খোদাবন্দপুর সমবায় কৃষি উন্নয়ন সমিতি ম্যানেজার।

ফরাক্কা ব্লকে ১৯০০ হেক্টর জমিতে চাষবাস হয়েছে, ইমামনগর থেকে অর্জনপুরে চাষবাস হয় বেশি। এবছর পাট চাষের ক্ষেত্রে অনুকূল আবহাওয়া থাকায় পাট চাষিরা লাভের মুখ দেখছেন। পাট পচানোর সময় পর্যাপ্ত পরিমাণ জলও মিলেছে। সময় মতো পাট কাটতে পেরেছেন চাষিরা- সব নিয়েই এবছর পাটের গুনগত মান ভালো হয়েছে, জানান সহ কৃষি অধিকর্তা।