চা এ টা এ জমজমাট ফুড ফেস্টিভ্যাল জমজমাট ফুড ফেস্টিভাল

২১ শে ফেব্রুয়ারি বুধবার বহরমপুর স্টেডিয়ামে ময়দানে উদ্বোধন হলো মুর্শিদাবাদ ফুড ফেস্টিভ্যালের | ফুড ফেস্টিভ্যাল চলবে আগামী ২ রা মার্চ পর্যন্ত | ফুড ফেস্টিভ্যাল তথা খাদ্য মেলার উদ্বোধনে উপস্থিত ছিলেন নির্মাল্য ঘরামি ( অতিরিক্ত জেলা শাসক, উন্নয়ন ), তন্ময় সরকার ( এডিশনাল এসপি লালবাগ ) সহ বিশিষ্টজনেরা | প্রদীপ প্রজ্বলনের মাধ্যমে অনুষ্ঠানের শুভ সূচনা হয় |৭৪ টি স্টল নিয়ে বহরমপুর স্টেডিয়াম ময়দান খাবারের গন্ধে মাতোয়ারা |

শুরুর দিন থেকেই  জমজমাট ফুড ফেস্টিভ্যাল | হরেক রকম খাবারের সাথে চা -এ সঙ্গে টা -এ মাতোয়ারা বহরমপুর এর ভোজন রসিক বাঙালিরা | বুঝলেন না তো! এবারের ফুড ফেস্টিভ্যালে রয়েছে হরেক রকমের চা! রয়েছে কফিও | আপনারা “তুরকিশ কফি” খেয়েছেন! তুরস্কের গরম বালিতে বাড়িতে তৈরি কফি বিক্রি হচ্ছে বহরমপুর ফুড ফেস্টিভ্যালের ২২ নং কৃষ্ণ টি স্টলে | শুধুই কি তাই চা প্রেমীদের প্রথম দিনেই নজর কেড়েছে “ফায়ার টি” |সাথে রয়েছে তন্দুরি চা | আর কি চাই! ভাবছেন তো সাথে চায়ের সাথে একটু টা হলে মন্দ হয় না | এবারে ফুড ফেস্টিভ্যালে রয়েছে বিভিন্ন রকমের কাবাব, সহ স্ন্যাকসের বিপুল আইটেম |

ফুড ফেস্টিভ্যাল সহ শহর বহরমপুর এই প্রথম পাওয়া যাচ্ছে “ট্যাকো”| আপনারা অনেকেই হয়তো “ট্যাকো” খেয়েছেন! যদি না খেয়ে থাকেন তাহলে অবশ্যই আসতে হবে ফুড ফেস্টিভ্যালের আরো একটি আকর্ষণীয় স্টল “কেটলি”(স্টল নং ৭৪)তে | শুরুতেই বলেছিলাম চা এ টা এ জমজমাট মুর্শিদাবাদ ফুড ফেস্টিভ্যাল | যদিও প্রথম দিনে কিন্তু সব স্টল সাজানো হয়নি , তাতেই কিন্তু উপচে পড়া ভিড় বেশ লক্ষ্যনীয় | এ তো গেল চায়ের কথা, চায়ের সাথে একটু তো ভারি খাওয়ার প্রয়োজন | নন ভেজ আইটেমের প্রচুর দোকান রয়েছে | তবে যাঁরা একদম ভেজ খেতে পছন্দ করেন তাঁদের জন্য রয়েছে “দেশি খিদে ”| আপনি আপনার মনের দেশি খিদেটা এখানে এসেই মেটাতে পারবেন | এমনটা কেন বললাম সেটা হয়তো আপনারা খেলে বুঝতে পারবেন | তার সাথে জানিয়ে রাখা ভাল এখানে শুধুমাত্র আমাদের পরিচিত খাবার গুলির সাথে পাওয়া যাচ্ছে সাউথ ইন্ডিয়ান, নর্থ ইন্ডিয়ান, ও বিহারী বিভিন্ন খাবার | এছাড়াও রয়েছে বর্ধমানের মিহিদানা, ভীম নাগের মিষ্টি, বিভিন্ন রকমের আচার | থাকছে মুর্শিদাবাদ স্পেশাল বিরিয়ানিও|

আরো থাকছে তুরোস্কিয়ান আইসক্রিম এর মজা, বিভিন্ন রকমের মকটেল | এবং প্রত্যেকদিন থাকছে বিভিন্ন রকমের সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান | অনুষ্ঠানের শুরুতেই ফুড ফেস্টিভ্যাল উদ্যোক্তাদের মধ্যে একজন বিশ্বদীপ বাবু জানান,“ মেলাটা শুরু হতে অনেকটা দেরি হলো | তবে অন্যবারের তুলনায় এবার মেলাটা অনেকটাই বড়, খাদ্য প্রেমীদের জন্য থাকছে বিভিন্ন রকমের স্টল | বহরমপুর স্টেডিয়ামে এই খাদ্য মেলায় সকলে আসুন, খাবার খান সন্ধ্যেটা উপভোগ করুন | ” সর্বোপরি বহরমপুরের মানুষকে নতুন নতুন স্বাদের খাবার খাওয়ানোর প্রচেষ্টাতেই ফেস্টিভ্যালের উদ্যোগ এমনটাই জানাচ্ছেন উদ্যোক্তারা | আগামী ২রা মার্চ পর্যন্ত ফুড ফেস্টিভ্যাল চলবে | তাহলে আর দেরি নয় ভোটের গরম হাওয়া তেও সন্ধেটা নাহয় একটু ভালো খাবারের সাথেই কাটুক |