কান্দি হাসপাতালে  নার্সকে থাপ্পড়, স্কেল তুলে মার ! শাস্তির দাবি

রবীন্দ্রনাথ কৈবর্ত্ত, কান্দিঃ  কোন হাত ভেঙেছে ? প্রশ্ন করতেই জুটল মার, থাপ্পড় !  এবার স্বাস্থ্যকর্মী নিগ্রহের অভিযোগ উঠল মুর্শিদাবাদের  কান্দি মহকুমা হাসপাতালে। নার্সদের উপর চড়াও হল রোগীর পরিবার।  এক নার্সকে থাপ্পড়ও  মারা হয়। আরেক নার্সকে মারধর করা হয় স্কেল দিয়ে । রোগীর পরিবারের হাতে নিগৃহীত হতে হলে দুই নার্সকে।

এদিন সকালে কান্দি হাসপাতালে ভর্তি করা হয় রাফিয়া বিবিকে ।হাত ভেঙে গিয়েছিল রাফিয়া বিবির।  চলছিল চিকিৎসা। সেই সময়  রোগীর পরিবারের সদস্যদের  কথা বলতে ডাকেন কর্তব্যরত  নার্স মধুরিমা রায়, সামিমা ইয়াসমিন। সেই সময়েই চড়াও হয় রোগীর আত্মীয়রা।

হাসপাতালের  নার্স মধুরিমা রায়  জানান, চিকিৎসা শুরু হয়েছিল রোগীর। এক্সরে করার রিকুইজিশন নিতে এসেছিলেন রোগীর পরিবারের সদস্যরা  । ডান হাত ভেঙ্গেছে না বাম হাত ভেঙেছে ? এই প্রশ্ন করতেই ক্ষিপ্ত হয়ে ওঠেন রোগীর পরিবারের সদস্যরা।  শুরু হয় মারধর। সহকর্মীকে বাঁচানোর চেষ্টা করেন  সামিমা ইয়াসমিন  । হামলা করা হয় তার উপরেও। টেবিলে পড়ে থাকা স্কেল তুলে মারধর করা হয় বলে অভিযোগ।  ঘটনায় কার্যত নিরাপত্তাহীনতায় ভুগছেন স্বাস্থ্যকর্মীরা।  অভিযুক্তদের শাস্তির দাবি তুলেছেন কান্দি মহকুমা হাসপাতালের স্বাস্থ্যকর্মীরা। এদিন   কান্দি মহকুমা হাসপাতালের ডঃ রাজেশ চন্দ্র সাহা জানান,  বিষয়টি কান্দি থানায় জানানো হয়েছে।  নার্সদের অভিযোগ পুলিশ, স্বাস্থ্য প্রশাসনের কাছে জানানো হয়েছে।  হাসপাতালের পক্ষ থেকেও  চিঠি লেখা হয়েছে।  চিকিৎসক, স্বাস্থ্যকর্মীদের নিরাপত্তার জন্য পুলিশি নিরাপত্তার আর্জি জানানো হয়েছে। কান্দি থানা সূত্রে খবর, এই ঘটনায় দুই ব্যক্তিকে আটক করেছে পুলিশ।