কানাপুকুর হাসপাতালে চিকিৎসায় গাফিলতির অভিযোগ

নিজস্ব প্রতিবেদনঃ রোগী না দেখেই রেফার করার অভিযোগ সরকারি হাসপাতালের কর্তব্যরত চিকিৎসকের বিরুদ্ধে। এক হাসপাতাল থেকে অন্য হাসপাতালে নিয়ে যাওয়ার পথেই প্রাণ হারাল রোগী। এই অভিযোগে, তুমুল উত্তেজনা ছড়াল মুর্শিদাবাদের ভগবানগোলার কানাপুকুর গ্রামীণ হাসপাতাল চত্বরে। জানা যায়, শুক্রবার সকালে কানাপুকুরের বাসিন্দা মিজান সেখ, ঘরের ভেতরে খাট সরানোর সময় বিদ্যুতের তারে স্পৃষ্ট হন। পরিবারের লোকজন তড়িঘড়ি কানাপুকুর হাসপাতালে নিয়ে এলে সেখানে চিকিৎসক রোগীকে না দেখেই লালবাগ মহকুমা হাসপাতালে রেফার করে দেয় বলে অভিযোগ।

রেফার হওয়া পরিযায়ী শ্রমিক মিজান সেখকে লালবাগ মহকুমা হাসপাতালে নিয়ে যাওয়ার পথেই প্রাণ হারান তিনি। স্বামীর অকাল মৃত্যুতে ছোট দুই সন্তান নিয়ে কান্নায় ভেঙে পরেন স্ত্রী। গোটা ঘটনায় চিকিৎসকের গাফিলতির অভিযোগ তোলেন মৃতের আত্মীয় সজনেরা।

হাসপাতালের সামনে পরিবার পরিজনেরা জড়ো হয়ে বিক্ষোভ দেখাতে শুরু করেন। ঘটনাস্থলে ভগবানগোলা থানার উচ্চ পদস্থ পুলিশ কর্তারা আসেন। পুলিশের সামনেই মৃতের পরিবারের লোকজন হাসপাতাল কতৃপক্ষের বিরুদ্ধে ক্ষোভ উগড়ে দেন। কানাপুকুর গ্রামীণ হাসপাতাল কতৃপক্ষের বিরুদ্ধে ক্ষোভ উগড়ে দেন স্থানীয়রাও।

যদিও রোগীকে না দেখার অভিযোগ অস্বীকার কর্তব্যরত চিকিৎসকের। তিনি বলেন, হাসপাতালে যখন রোগীকে আনা হয় তখন তার অবস্থা অত্যন্ত সংকটজনক ছিল। রোগীকে দেখার পর রেফার করা হয়। কিন্তু তারপরেও দেরী করতে থাকে রোগীর পরিবার।

মৃতদেহ লালবাগ মহকুমা হাসপাতাল থেকে ময়নাতদন্তের জন্য পাঠানো হয়।

কানাপুকুর হাসপাতালে চিকিৎসায় গাফিলতির অভিযোগ from IMAGIN CTv on Vimeo.