ইউক্রেনে আটকে জঙ্গিপুরের তোজাম্মেল, যুদ্ধ থামুক, সব ছেলেই দেশে ফিরুক, আর্তি মায়ের Indian Student in Ukraine

মধ্যবঙ্গ নিউজ ডেস্কঃ যুদ্ধ চলছে  ইউক্রেনে আটকে জঙ্গীপুরের তোজাম্মেল ।  ‘” যুদ্ধের সাইরেন বেজেছে, চলে যেতে হবে নিরাপদ জায়গায়”,  বাবা মায়ের সাথে ফোনে শেষ এই কথা বলেছিল ডাক্তারি পড়ুয়া  তোজ্জামেল। ছেলে হবে ডাক্তার, দু চোখভরা  স্বপ্ন বাবা মায়ের। কিন্তু কেই বা জানত- এমন যুদ্ধের সম্মুখীন হতে হবে সন্তানকে! শুক্রবারের সকালের সাইরেন এর আওয়াজে কেঁপে উঠল বাবা মায়ের মন। ছেলের ফোন, তারপরেই যোগাযোগ বন্ধ।

টিভিতে দেখছেন,  রুশ হামলায় যুদ্ধবিধ্বস্ত ইউক্রেন। ইউক্রেনে আটকে  মুর্শিদাবাদের জঙ্গীপুরের বাসিন্দা ডাক্তারি পড়ুয়া তোজাম্মেল হক।  বছর খানেক ধরে করোনা আবহে বাড়িতেই ছিলেন তোজাম্মেল , অনলাইনেই চলছিল পড়াশোনা। গত ডিসেম্বরে যায় ইউক্রেন।

এদিকে রাজধানী কিয়েভ সহ ইউক্রেনের একাধিক শহরে আছড়ে পড়েছে রুশ মিসাইল। যুদ্ধ শুরুর সঙ্গে সঙ্গেই বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে ইউক্রেনের আকাশসীমা। ফলে ইউক্রেনে আটকে পড়া ভারতীয় নাগরিক থেকে পড়ুয়াদের উদ্ধারে দেখা দিয়েছে সমস্যা। কারণ এয়ারস্পেস বন্ধ থাকায় বিমান ওঠা-নামা বন্ধ। বিকল্প উপায়ে কীভাবে ভারতীয়দের দেশে ফেরানো যায়, তা নিয়ে ভাবনাচিন্তা শুরু করেছে বিদেশমন্ত্রক। ছেলেকে সুস্থ ভাবে ফিরে পেতে উৎকণ্ঠায় এবং আতঙ্কে ছাত্রের পরিবার। শুক্রবার সকালে শেষ কথা হয় ছেলের সাথে, জানান তোজাম্মেলের বাবা। উৎকণ্ঠায় আত্মীয় সজনেরাও।

জয়রামপুরে তোজাম্মেলের বাড়ি জুড়ে এখন শুধুই নিস্তব্ধতা। বার বার দূতাবাসে যোগাযোগের চেষ্টা পরিবারের। টিভি র পর্দায় চোখ বাবা মায়ের। ভেজা চোখে ছেলেকে কাছে ফিরে পাওয়ার অপেক্ষায় মা। ঘরে বসেই একমাত্র সন্তানের জন্য দোয়া মায়ের। তোজাম্মেলের মা হাসিনা খাতুনের প্রার্থনা, দেশের সব ছেলেরা দেশে ফিরুক। যুদ্ধ থামুক।